ঢাকা ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০২ এপ্রিল ২০২৩, ১৮ চৈত্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

আক্রান্ত রোগিদের চিকিৎসা দিতে প্রস্তুত রামেক হাসপাতাল

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৬:৫৯:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ এপ্রিল ২০২০
  • / 28

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় এখন আর চিকিৎসা সরঞ্জামের ঘাটতি নেই।

গতকাল বুধবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত সাংবাদিকদের প্রেস বিফিংয়ে এ বিষয়ে জানিয়েছে রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক সাইফুল ফেরদৌস।

এ সময় তিনি জানান, করোনা ভাইরাস পরীক্ষায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজে ল্যাব স্থাপন হয়েছে। আক্রান্ত রোগিদের চিকিৎসা দিতে হাসপাতালও প্রস্তুত। এখন হাসপাতালে চিকিৎসা সংশ্লিষ্টদের জন্য ব্যক্তিগত সুরক্ষা পোশাক (পিপিই) রয়েছে চার হাজার ৪০০ পিস। দুই হাজার ২৭৫ গগোজ (নিরাপত্তা চশমা), ২০ হাজার মাস্ক, ২৫ হাজার ক্যাপ ও ২৫ হাজার গ্লাভস মজুদ রয়েছে।

তিনি আরো জানান, পর্যাপ্ত চিকিৎসা সররঞ্জাম রয়েছে। প্রয়োজন হলে আরও আনা হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে নার্স ও চিকিৎসকদের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক নিরাপত্তা পোশাক দেয়া হচ্ছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন করোনা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক টিমের প্রধান ডা. আজিজুল হক আজাদ। তিনি বলেন, কেউ আতঙ্কিত হবেন না। আমাদের দেয়া নাম্বরগুলোতে কল করুন। আমাদের কাছ থেকে পরামর্শ নিন। আমরা প্রস্তুত আছি। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য ২৯ ও ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে সম্পূর্ণ প্রস্তুত করা হয়েছে। সেখানে ৫ জন চিকিৎসকের আলাদা টিম করে দেয়া হয়েছে।

প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহিরে না বের হওয়ার আহবান জানিয়ে ডা. আজাদ বলেন, ১ কোটি ১০ লাখ ঢাকা ফেরত মানুষ এখন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অবস্থান করছেন। নিজেদেরসহ পরিবার ও সমাজের স্বার্থে সবাইকে আরো অন্তত সাতদিন ঘরের ভেতরেই থাকতে হবে। এ সময়টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত একজন অন্তত তিনজনকে ইনফেকটেড করতে সক্ষম। রাজশাহীতে এখন পর্যন্ত কোন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়নি বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

আক্রান্ত রোগিদের চিকিৎসা দিতে প্রস্তুত রামেক হাসপাতাল

প্রকাশিত সময় ০৬:৫৯:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ এপ্রিল ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় এখন আর চিকিৎসা সরঞ্জামের ঘাটতি নেই।

গতকাল বুধবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত সাংবাদিকদের প্রেস বিফিংয়ে এ বিষয়ে জানিয়েছে রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক সাইফুল ফেরদৌস।

এ সময় তিনি জানান, করোনা ভাইরাস পরীক্ষায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজে ল্যাব স্থাপন হয়েছে। আক্রান্ত রোগিদের চিকিৎসা দিতে হাসপাতালও প্রস্তুত। এখন হাসপাতালে চিকিৎসা সংশ্লিষ্টদের জন্য ব্যক্তিগত সুরক্ষা পোশাক (পিপিই) রয়েছে চার হাজার ৪০০ পিস। দুই হাজার ২৭৫ গগোজ (নিরাপত্তা চশমা), ২০ হাজার মাস্ক, ২৫ হাজার ক্যাপ ও ২৫ হাজার গ্লাভস মজুদ রয়েছে।

তিনি আরো জানান, পর্যাপ্ত চিকিৎসা সররঞ্জাম রয়েছে। প্রয়োজন হলে আরও আনা হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে নার্স ও চিকিৎসকদের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক নিরাপত্তা পোশাক দেয়া হচ্ছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন করোনা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক টিমের প্রধান ডা. আজিজুল হক আজাদ। তিনি বলেন, কেউ আতঙ্কিত হবেন না। আমাদের দেয়া নাম্বরগুলোতে কল করুন। আমাদের কাছ থেকে পরামর্শ নিন। আমরা প্রস্তুত আছি। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য ২৯ ও ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে সম্পূর্ণ প্রস্তুত করা হয়েছে। সেখানে ৫ জন চিকিৎসকের আলাদা টিম করে দেয়া হয়েছে।

প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহিরে না বের হওয়ার আহবান জানিয়ে ডা. আজাদ বলেন, ১ কোটি ১০ লাখ ঢাকা ফেরত মানুষ এখন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অবস্থান করছেন। নিজেদেরসহ পরিবার ও সমাজের স্বার্থে সবাইকে আরো অন্তত সাতদিন ঘরের ভেতরেই থাকতে হবে। এ সময়টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত একজন অন্তত তিনজনকে ইনফেকটেড করতে সক্ষম। রাজশাহীতে এখন পর্যন্ত কোন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়নি বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।