আটঘরিয়ায় যৌতুক না পেয়ে রোজিনা খাতুনকে শ্বাসরোধে হত্যা মামলা ভিন্নখাতে নেওয়ার অভিযোগ

আটঘরিয়া (পাবনা) প্রতিনিধিঃ পাবনার আটঘরিয়ায় পাষন্ড স্বামী হাসান আলী যৌতুকের ৩ লাখ টাকা না পেয়ে স্ত্রী রোজিনা খাতুনকে শ্বাসরোধে হত্যা, তবে মামলাটি ভিন্নখাতে নেওয়ার পায়তারা অভিযোগ পরিবারের।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, আটঘরিয়া উপজেলার চাঁদভা ইউনিয়নের কদমডাঙ্গা গ্রামের মৃত ওসমান আলী মন্ডলের ছেলে লম্পট যৌতৃক লোভী হাসান আলীর সাথে সদর উপজেলার মালিগাছা ইউনিয়নের ভজেন্দ্রপুর গ্রামের মৃত রফিক আলীর মেয়ের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে দীর্ঘ ১৭ বছর সংসার জীবনে তাদের সংসারে দুইটি সন্তার জন্ম গ্রহন করেন। এক পর্যায়ে হাসান আলী স্ত্রী রোজিনা খাতুনের ওপর শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতন চালায় ৩ লাখ টাকার জন্য।

এরই জের ধরে গত ২৪ নভেম্বর, ২০১৯ তারিখে হাসান আলী স্ত্রী রোজিনা খাতুনকে বাবার বাড়ী যৌতুকের ৩ লাখ টাকা আনার জন্য মারধর করেন। রোজিনা খাতুন যৌতুকের টাকা দিতে অস্বীকার করলে হাসান আলী তার ভাই মনিরুল ইসলাম ও রফিক আলী মন্ডল পরিকল্পিত ভাবে এলোপাথারী ভাবে লাঠি দিয়ে পারপিট করে সারা শরীরে ফোলা ও জখম করে দেয়।

এক পর্যায়ে যৌতুকের টাকা না পেয়ে প্রচন্ড ক্ষিপ্ত হয়ে হাসান আলী স্ত্রী রোজিনা খাতুনকে শ্বাসরোধে হত্যা করে ঘরের ডাবের সাথে গলায় রশি দিয়ে ঝুলিয়ে রেখে মৃত নিশ্চিত করে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

পরে বিষয়টি সবার মধ্যে জানা জানি হলে থানা পুলিশকে খবর দিলে মৃতদেহ উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতল মর্গে প্রেরণ করেন। নিহতের পরিবার অভিযোগ করে বলেন, পুলিশ উৎকোচের বিনিময়ে মামলাটি ভিন্ন খাতে নেওয়ার পায়তানা করছে। তবে আটঘরিয়া থানার ওসি তদন্ত আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিক বলেন, ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেলেই মামলা রজু করা হবে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন