ঈশ্বরদীর ‘পাবনা রোডে’ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে সড়ক ও জনপথ বিভাগের অভিযান

ঈশ্বরদীর পাবনা রোডের দুই পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে সড়ক ও জনপথ বিভাগের অভিযান চলছে।


ঈশ্বরদী সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:১৩ অপরাহ্ন, ২২ জুন ২০২২

ঈশ্বরদী থেকে রাজশাহীর বানেশ্বর পর্যন্ত আঞ্চলিক সড়ক উন্নতিকরণ কাজের অংশ হিসেবে সড়কের দুই পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে পাবনার সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

বুধবার (২২জুন) সকাল সাড়ে ১১ টায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের আইন কর্মকর্তা এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুজ্জামান মিয়ার নেতৃত্বে ঈশ্বরদী আলহাজ্ব থেকে এই উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়।

উচ্ছেদ অভিযান ২
চিত্র ১


এই অভিযানে আলহাজ্ব মোড় থেকে রেলগেট পর্যন্ত চার শতাধিক দোকানপাট স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। এই সময় উপজেলা ছাত্রলীগের কার্যালয় ও উপজেলা যুবলীগের কার্যালয়ের বারান্দাও উচ্ছেদ করা হয়েছে।

আলহাজ্ব মোড়ের ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মকবুল হোসেন চুন্নু বলেন, উচ্ছেদ অভিযানে শত শত ক্ষুদ্রব্যবসায়ী বেকার হয়ে পড়বে। ক্ষুদ্র এসব ব্যবসায়ীরা সড়ক ও জনপথের অব্যবহত জায়গায় ছোট ছোট দোকানঘর নির্মাণ করে জীবিকা নির্বাহ করছিল।

পৌর কাউন্সিলর ইউসুফ আলী প্রধান বলেন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি হিসেবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী প্রকৌশলীকে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে ব্যবসায়ীদের দোকানপাট সরিয়ে নেয়ার জন্য আরও দু’একদিন সময় দেওয়ার অনুরোধ করেছিলাম। উচ্ছেদ অভিযানের ফলে দোকানপাট ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এতে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের পথে বসতে হবে।

উচ্ছেদ অভিযান ৩
চিত্র ২


ঈশ্বরদী উপজেলা ছাত্র লীগের এক নেতা বলেন, উচ্ছেদ অভিযানে ছাত্র লীগের কার্যালয় ভেঙে দেওয়া হয়েছে, আসবাবপত্র আগেই সরিয়ে নেওয়া হয়।

ঈশ্বরদী পৌর সভার মেয়র ইসাহাক আলী মালিথা ঘটনাস্থলে গিয়ে ব্যবসায়ীদের শান্ত্বনা দেন। এই সময় তিনি বলেন, ইতিপূর্বে একাধিকবার উচ্ছেদ অভিযান স্থগিত করা হয়েছিল। এবার সে সুযোগ ছিল না।

পাবনা সড়ক ও জনপথের নির্বাহী প্রকৌশলী (চলতি দায়িত্ব) আব্দুল মনসুর আহমেদ জানান, ঈশ্বরদী-বানেশ্বর আঞ্চলিক সড়ক উন্নয়ন কাজের অংশ হিসেবে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হচ্ছে। ইতিপূর্বে অবৈধ স্থাপনার মালিকদের নোটিশ দিয়ে ও মাইকিং করে সতর্ক করা হয়েছিল।

 


 আরও পড়ুনঃ

 আরও পড়ুনঃ

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন