ঈশ্বরদীর যুক্তিতলায় গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

নিজেস্ব প্রতিনিধিঃ ঈশ্বরদীর যুক্তিতলায় ছন্দা (৩০) নামের এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পরিবারের সদস্যরা।

রবিবার ১৭ অক্টোবর সকালে ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশী ইউনিয়নের যুক্তিতলা এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে।

নিহত ছন্দা পাকশী যুক্তিতলা এলাকার মৃত কুরবান আলী ফকিরের ছেলে (প্রবাসী) বকুল হোসেনের স্ত্রী এবং উত্তর বাঘইল গ্রামের আব্দুস সামাদের মেয়ে। নিহত ছন্দা দুই সন্তানের জননী ছিলেন।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকালে ছন্দার বড় ছেলে তাদের শয়ন কক্ষে সর্বপ্রথম মায়ের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। এসময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা এসে গলার ফাঁসির রশি কেটে তাকে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত ছন্দার পরিবারের সদস্যরা জানান, প্রায় ১০ বছর পূর্বে বকুলের সাথে ভাবে বিয়ে হয় ছন্দার। বিয়ের আগে থেকেই বকুল সৌদি প্রবাসী। বিয়ের পর বকুল বিদেশ গেলে তখন থেকেই ছন্দার সাথে তার শাশুড়ি ও দেবর রুবেলের মনোমালিন্য হয়। পারিবারিক কলহের কারণে মাঝে মধ্যেই শাশুড়ি ও দেবরের সাথে তার ঝগড়া হতো।

বকুলের বড় ভাবি জানান, তার দেবর রুবেলের ব্যবহার অত্যন্ত খারাপ। আমরা যে কয়েকজন জা আছি কাউকে সম্মান করতো না, বরং আমরা তার থেকে নির্যাতনের শিকার হয়েছি।

ছন্দার নিহতের ঘটনার বিষয়ে পরিবারের সদস্যরা বলেন, এটি আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত হত্যা ময়না তদন্তের পর জানা যাবে।

এদিকে ঘটনার পর থেকে ছন্দার দেবর রুবেল পলাতক রয়েছে।

এব্যাপারে ঈশ্বরদী থানার ওসি (তদন্ত) হাদিউল ইসলাম জানান, এই ঘটনায় ঈশ্বরদী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ পাবনা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ পাবনায় চাঞ্চল্যকর বিল্লাল মিশরী হত্যার প্রধান আসামিসহ ২ জন গ্রেফতার

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন