কাঠের সেতু তৈরি হওয়ায় স্বস্তিতে গাইবান্ধার চন্ডিপুরের বাসিন্দারা!

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের  পূর্ব চন্ডিপুর গ্রামে একটি সেতুর অভাবে দূর্ভোগ পোহাতে হতো তিন গ্রামের  হাজার হাজার পথচারীর। একসময় যেখানে ছিলনা কোনো সাকো কিংবা সেতু। 

বর্ষা কিংবা বন্যা সব সময়ই যেন চরম দূর্ভোগে থাকত এই এলাকার মানুষেরা। বিশেষ করে শিশু,প্রতিবন্ধী ও বৃদ্ধদের পোহাতে হতো সীমাহীন দূর্ভোগ আর ভোগান্তি। সামান্য পানি বৃদ্ধি পেলেই যাতায়াত করতে পারতো না মানুষজন।  ফলে কলা গাছের ভেলা বানিয়ে পাড়াপাড় হতে হতো।

রাস্তা নেই, যার ফলে এলাকায় ছেলে মেয়েদের বিয়ে নিয়েও পর হতো বিড়ম্বনায়। দেখে মনে এতো এই এলাকায় এখনো লাগেনি কোনো আধুনিকতার ছোয়া।

একসময় সাঁকো সেতু না থাকায় চলতে পারত না কোনো যানবাহন।  বর্ষাকালে বা গ্রীষ্মকাল সবসময় নৌকা বা একটি বাশের উপরে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার করতে হতো জনসাধারণকে।

তবে এই গ্রামের হাজার হাজার পথচারীর কথা ভেবে এবার এলজিএসপি প্রকল্পের মাধ্যমে একটি কাঠের সেতু করে দেন ইউপি সদস্য মোঃ সোহানুর রহমান রনজু। যার দ্বারা প্রতিদিন খুব সহজেই চলাফেরা করতে পারছে এলাকাবাসী।

জানা গেছে প্রতিদিন এই সাকোদিয়ে হাট বাজার, শহরে যাতাযাত করে হাজার হাজার লোকজন। স্কুল কলেজের কোমলমতি শিক্ষার্থীরাও চলা ফেরা করে প্রতিনিয়ত। আগে চলাফেরা করতে অসুবিধা হলেও এখন অনেকটাই খুশি তারা।

আরও পরুনঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে অবৈধ কাঠকয়লার কারখানা বন্ধের দাবিতে স্মারকলিপি পেশ

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন