ঢাকা ১১:২৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০২৩, ১০ চৈত্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

কুমারখালীতে পেঁয়াজ ক্ষেতের সাথে শত্রুতা

কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি:
  • প্রকাশিত সময় ০৩:০৩:১২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / 58

রাতের আধাঁরে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে কৃষক মো. মোমিন মন্ডলের প্রায় ১২ কাঠা ( ১৯ শতক) জমির পেয়াজ ক্ষেত তছরুপ করার অভিযোগ উঠেছে।


রাতের আধাঁরে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে এক কৃষকের প্রায় ১২ কাঠা ( ১৯ শতাংশ) জমির পেয়াজ ক্ষেত তছরুপ করার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার ( ১৩ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতের কোনো এক ভাগে উপজেলার বাগুলাট ইউনিয়নের দক্ষিণ মনোহারপুর গ্রামে এঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক মো. মোমিন মন্ডল (৪০) ওই এলাকার মো. মগুল মন্ডলের ছেলে।

কৃষক মোমিন মন্ডল বলেন, এবছর তিনি প্রায় দেড় বিঘা (৩২ কাঠা) জমিতে পেয়াজের চারা রোপন করেছেন। সকালে তিনি মাঠে গিয়ে দেখেন তার প্রায় ১২ কাঠা জমির পেয়াজের গাছ উপড়ে তুলে ফেলা হয়েছে। পূর্বশত্রুতার জেরে রাতের আধাঁরে কে বা কারা কাহারা একাজ করেছেন তা তিনি জানেন না। পেয়াজ ঘরে তুলতে পারলে তিনি প্রায় ৪০-৫০ হাজার টাকা বিক্রি করতে পারতেন। থানায় লিখিত অভিযোগ করবেন বলে তিনি জানান।

এতথ্য নিশ্চিত করে বাগুলাট ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. আজিজুল হক নবা বলেন, মুঠোফোনে তিনি পেয়াজ খেত তছরুপের খবর পেয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্থ কৃষককে থানায় যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দেবাশীষ কুমার দাস বলেন, তিনি খবর পেয়েছেন। খেঁাজ নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি। ওসি মো. মোহসীন হোসাইন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া
হবে।

এই রকম আরও টপিক

কুমারখালীতে পেঁয়াজ ক্ষেতের সাথে শত্রুতা

প্রকাশিত সময় ০৩:০৩:১২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

রাতের আধাঁরে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে এক কৃষকের প্রায় ১২ কাঠা ( ১৯ শতাংশ) জমির পেয়াজ ক্ষেত তছরুপ করার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার ( ১৩ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতের কোনো এক ভাগে উপজেলার বাগুলাট ইউনিয়নের দক্ষিণ মনোহারপুর গ্রামে এঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক মো. মোমিন মন্ডল (৪০) ওই এলাকার মো. মগুল মন্ডলের ছেলে।

কৃষক মোমিন মন্ডল বলেন, এবছর তিনি প্রায় দেড় বিঘা (৩২ কাঠা) জমিতে পেয়াজের চারা রোপন করেছেন। সকালে তিনি মাঠে গিয়ে দেখেন তার প্রায় ১২ কাঠা জমির পেয়াজের গাছ উপড়ে তুলে ফেলা হয়েছে। পূর্বশত্রুতার জেরে রাতের আধাঁরে কে বা কারা কাহারা একাজ করেছেন তা তিনি জানেন না। পেয়াজ ঘরে তুলতে পারলে তিনি প্রায় ৪০-৫০ হাজার টাকা বিক্রি করতে পারতেন। থানায় লিখিত অভিযোগ করবেন বলে তিনি জানান।

এতথ্য নিশ্চিত করে বাগুলাট ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. আজিজুল হক নবা বলেন, মুঠোফোনে তিনি পেয়াজ খেত তছরুপের খবর পেয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্থ কৃষককে থানায় যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দেবাশীষ কুমার দাস বলেন, তিনি খবর পেয়েছেন। খেঁাজ নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি। ওসি মো. মোহসীন হোসাইন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া
হবে।