ঢাকা ০৮:৫৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

পুঁজিবাজারে আসছে সাতটি লাভজনক সরকারি প্রতিষ্ঠানঃ অর্থমন্ত্রী

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৯:৪৭:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • / 23

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, পুঁজিবাজার চাঙ্গা করতে শিগ্রই পুঁজিবাজারে আসছে সাতটি লাভজনক সরকারি প্রতিষ্ঠান। এর পাশাপাশি আরো সরকারি প্রতিষ্ঠান পুঁজিবাজারে আসা উচিত।

আজ ঢাকায় শেরেবাংলা নগরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়ন ফোরাম-বিডিএফের এবারের সম্মেলনে সোয়া ৪ বিলিয়ন বা ৪২৫ কোটি ডলার প্রতিশ্রুতি পাওয়া গিয়েছে। এর মধ্যে ১ দশমিক ২ বিলিয়ন বা ১২০ কোটি ডলার জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় আগামী ৪ বছরে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা। এ অর্থ ঋণ নয়, অনুদান হিসেবে দিবে তারা।

এছাড়া বিশ্বব্যাংক সম্প্রতি রোহিঙ্গা এবং স্থানীয় জনগোষ্ঠীকে অন্তর্ভুক্ত করে ২টি চলমান প্রকল্পে অতিরিক্ত ও একটি নতুন প্রকল্পে ৩৫০ মিলিয়ন ডালার অর্থ অনুদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

এসব অর্থ বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী ও রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আশপাশের স্থানীয় জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে ব্যবহৃত হবে।

পুঁজিবাজারে আসছে সাতটি লাভজনক সরকারি প্রতিষ্ঠানঃ অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত সময় ০৯:৪৭:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২০

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, পুঁজিবাজার চাঙ্গা করতে শিগ্রই পুঁজিবাজারে আসছে সাতটি লাভজনক সরকারি প্রতিষ্ঠান। এর পাশাপাশি আরো সরকারি প্রতিষ্ঠান পুঁজিবাজারে আসা উচিত।

আজ ঢাকায় শেরেবাংলা নগরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়ন ফোরাম-বিডিএফের এবারের সম্মেলনে সোয়া ৪ বিলিয়ন বা ৪২৫ কোটি ডলার প্রতিশ্রুতি পাওয়া গিয়েছে। এর মধ্যে ১ দশমিক ২ বিলিয়ন বা ১২০ কোটি ডলার জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় আগামী ৪ বছরে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা। এ অর্থ ঋণ নয়, অনুদান হিসেবে দিবে তারা।

এছাড়া বিশ্বব্যাংক সম্প্রতি রোহিঙ্গা এবং স্থানীয় জনগোষ্ঠীকে অন্তর্ভুক্ত করে ২টি চলমান প্রকল্পে অতিরিক্ত ও একটি নতুন প্রকল্পে ৩৫০ মিলিয়ন ডালার অর্থ অনুদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

এসব অর্থ বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী ও রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আশপাশের স্থানীয় জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে ব্যবহৃত হবে।