টাঙ্গাইলে এলাকাবাসীর সহায়তায় ধরা পড়ল চোর

কামরান পারভেজ ইভান, টাঙ্গাইলঃ টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে গভীর রাতে মসজিদের তালা ভেঙ্গে চুরি করতে গেলে হাতে নাতে ধরা পড়ে বারেক নামের এক চোর।

গত ০৬ মার্চ (শুক্রবার) দিবাগত রাতে উপজেলার উত্তর খিলগাতি ঠাকুর পাড়া জামে মসজিদে এই চুরির ঘটনা ঘটে। রাতে চোর মসজিদের তালা ভেঙ্গে মাইক, ব্যাটারি সহ যাবতীয় জিনিস চুরি করার জন্য ভেতরে প্রবেশ করে। চুরি করার সময় হালকা শব্দ হয়। মসজিদ কমিটির সেক্রেটারি মজনু মিয়ার বাড়ি মসজিদ সংলগ্ন হওয়ায় ঘর থেকে সেই শব্দ শুনতে পায়। শব্দের আওয়াজ জোড়ালো না থাকলেও তিনি জানালা খুলে রাখেন। তিনি দুইজন চোরকে মসজিদে ঢুকতে দেখেন। তিনি চোর বুঝতে পেরে মুঠোফোনে তার এলাকাবাসীদের জানান দেন।

পরে এলাকাবাসী কয়েকজন মসজিদ ঘিরে ফেললে ছাদে মাইক চুরি করতে যাওয়া চোর টের পেয়ে আগেই পালাতে সক্ষম হলেও মসজিদের ভিতরে থাকা অন্য চোর কিছু টের পায়না। সবাই টর্চ লাইট নিয়ে মসজিদে প্রবেশ করতে গেলে টের পেয়ে ভিতরে থাকা চোর বারান্দা দিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু বারান্দায় ছাদের কাজ চলমান থাকায় বাঁশের খুঁটির কারণে পালাতে ব্যর্থ হয় ও আঘাত প্রাপ্ত হয়। বেশ দস্তাদস্তি করে তাকে ধরতে সক্ষম হয় সবাই। পরে মসজিদের মাইকে চোর ধরার খবর প্রচার করা করলে এলাকাবাসী সমবেত হয়।

এলাকাবাসী চোরকে ঠিকানা জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে উত্তর দিতে অসম্মতি প্রকাশ করে। পরে ৯৯৯ এ কল দিয়ে পুলিশ আসে। তার ব্যবহৃত মোবাইল দিয়ে তার পরিবারের লোকজনদেরও জানানো হয়। তার স্ত্রী ও শ্বাশুরী আসে। তার পরিবারের লোকজন তাকে নির্দোষ ও মানুষের পাল্লায় পরে এমনটা করেছে বলে দাবি জানায়।

তার শাশুরি জানায় যে, তার নাম বারেক এবং তাদের বাসা মধুপুর মদনগোপাল আঙ্গিনার কাছে। পরে পুলিশ বারেক ও তার পরিবারকে থানায় নিয়ে যায়।

উল্লেখ্য যে, পাশেই একটি ওয়াজ মাহফিলে যাওয়ার কারনে অন্যান্য দিনের মত গতরাতে ইমাম সাহেব মসজিদের পাশে থাকার ঘরটিতে ছিলেন না। আর এই সুযোগটি চোরেরা ব্যবহার করতে চেয়েছিল।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন