টাঙ্গাইলে ব্যতিক্রম ভাবে উদযাপিত হলো মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

বিশেষ প্রতিনিধি, টাঙ্গাইলঃ টাঙ্গাইলে ভূঞাপুরে (৩ফুট) দূরত্ব বজায় রেখে ব্যতিক্রমভাবে উদযাপিত হলো ৪৯তম মহান স্বাধীনতা দিবস। ২৬ মার্চ (বৃহস্পতিবার) ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদে শহীদ মিনারে উদযাপিত হয়েছে।

সারা দেশে সরকারী ঘোষণা মতে করোনা ভাইরাসের কারণে সতর্কতা অবলম্বনে জাতীয় দিবসসহ সকল সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ড নিষিদ্ধ। অতি সংক্ষেপে শহীদদের স্মরণ ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে ব্যতিক্রম ভাবে মহান স্বাধীনতা দিবস পালন করা হয়েছে। নানা কর্মসূচির মাধ্যমে ভাবে দিবসটি পালন করা হলেও সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিনের কর্মসূচি শুরু করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় পতাকা উত্তোলনও জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম এ্যাডভোকেট, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. নাসরীন পারভীন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসলাম হোসাইন, সাবেক সংসদ সদস্য শামছুল হক তালুকদার, ভাইস চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম বাবু , আলিফ নূর মিনি, থানার অফিসার ইনচার্জ রাশিদুল ইসলাম, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল আজিজ, এম.এ মজিদ মিয়া, প্রেসক্লাব সভাপতি শাহ আলম প্রামাণিক প্রমুখ।

এদিকে ভূঞাপুর উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ কর্তৃপক্ষ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নিয়মিত ভাবে মানুষকে সচেতন করে যাচ্ছে। সরকার সারা দেশে গত ২৪ মার্চ (মঙ্গলবার) সেনাবাহিনী মোতায়েন করার ঘোষণার মাধ্যমে সবার মাঝে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য জরুরি অবস্থা জারি করে। সেখানে ওষুধের দোকান, কাঁচামালের বাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জরুরী পণ্যের দোকান ছাড়া সকল দোকান বন্ধ ও বিনা প্রয়োজনে সবাইকে ঘর থেকে বের হওয়া নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

এরপর জেলা পর্যায়ে সেনাবাহিনীকে মাঠে দেখা গেলেও উপজেলা পর্যায়ে তাদেরকে দেখা যায়নি। আর তাই স্থানীয় প্রশাসন ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন সম্মিলিতভাবে লিফলেট বিতরণ, সচেতনমূলক প্রচার মাইকিংসহ সচেতনমূলক বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। পুলিশ কর্তৃপক্ষ নিয়মিত বাজার পরিদর্শন ও জনগণকে বাইরে ঘোরাফেরা না করতে সচেতন করে যাচ্ছে। উপজেলা প্রশাসন নিয়মিত বাজার মূল্যবৃদ্ধি মনিটরিং করে যাচ্ছে।

এখন পর্যন্ত ভূঞাপুরে কোন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিকে পাওয়া যায়নি।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন