তাড়াশে ধর্মীয় অনুভুতিকে আঘাত হানায় ৬ জন গ্রেফতার

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের তাড়াশে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ইসলাম ধর্মের কোরআান নিয়ে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানায় লালন মাহম্মুদ ওরফে মো: নাসিম মাহমুদ (২০) নামের এক কলেজ ছাত্রসহ ছয় জন কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে তাড়াশ থানা পুলিশ ও ডিবি।

নাসিম মাহমুদ নাটোরের সিংড়া সরকারি গোলে আফরোজ কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্র এবং তাড়াশ উপজেলার রোকনপুর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে।

শনিবার (১৪ মার্চ) গভীর রাতে পুলিশের একাধিক বিভাগ অভিযান চালিয়ে সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থেকে তাকে আটক করে।

অন্য পাঁচ জনের নাম পরিচয় পুলিশ না জানালেও, স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রোকনপুর গ্রামের মৃত ইনসাব আলীর ছেলে ইয়াবুব আলী (৩৫), দামড়া গ্রামের আজম আলীর ছেলে দুলাল হোসেন (২০), রানীরহাট গ্রামের মৃত ইয়াসিনের ছেলে নূর ইসলাম (৩৭), কলামুলা গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে জাব্বারুল ইসলাম (২৫) ও শেরপুর উপজেলার নয়ানাপাড়া গ্রামের বলরাম চন্দ্রের ছেলে ফটিক চন্দ্র (৪২)। আটককৃতরা ফটোস্ট্যাট ব্যবসায়ী ও লিফলেট প্রচারকারী ও নাসিমের বন্ধু বলে জানা গেছে।

অভিযানে নেতৃত্বে থাকা রায়গঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার ইমরান রহমান বলেন, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মামলা দায়ের না হওয়া পর্যন্ত নিশ্চিত করে কিছু বলা যাবে না।

জানা যায়, লালন মাহম্মুদ একটি ফেসবুক আইডি থেকে ইসলাম ধর্মের কোরআান নিয়ে স্ট্যাটাস দিলে সাধারণ মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লাগায় এলাকায় মুসলমানদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। বিষয়টি পুলিশ কে জানালে পুলিশের একাধিক বিভাগ মাঠে নেমে রাতভর অভিযান চালিয়ে ওই ছয়জন কে আটক করে।

তবে পুলিশের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, মূলতঃ নাসিম কেই এজাহারভূক্ত আসামী করা হবে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন