দুই নদীর মোহনায় ক্যাম্পাস নির্মাণ কষ্টসাধ্য হলেও সম্ভব- মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে রবীন্দ্র বিশ্ব বিদ্যালয়ের উপাচার্য

গত রবিবার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মহামান্য রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ গুচ্ছভুক্ত ২২টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণের সাথে মতবিনিময় করেন। ছবি: সংগৃহীত


শাহজাদপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০১:১২ পূর্বাহ্ন, ২২ জুন ২০২২

রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের আচার্য মোঃ আবদুল হামিদ-এর সাথে গুচ্ছভুক্ত ২২টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সাথে মতবিনিময়ের সময় একথা বলেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম।

রাষ্ট্রপতি রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে বিশেষভাবে কথা বলেন এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে জানতে চাইলে, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান অগ্রগতি, পড়াশোনা এবং যেভাবে কাজ চলছে সেই বিষয়টি মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে উপস্থাপন করেন। রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রগতি ও পড়াশোনার বিষয়ে অবগত হয়ে মহামান্য রাষ্ট্রপতি সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং রবি উপাচার্যকে বলেন যদিও দুই নদীর মোহনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস নির্মাণ কষ্টসাধ্য তারপরও আপনি পারবেন বলে আমি মনে করি।

রাষ্ট্রপতিকে আশ্বস্ত করে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বলেন, দুই নদীর মোহনায় রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস নির্মাণ কষ্টসাধ্য হলেও আমরা তা পারবো। গত রবিবার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ গুচ্ছভুক্ত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণের সাথে মতবিনিময় করেন।

এসময় মহামান্য রাষ্ট্রপতি গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানান এবং এক্ষেত্রে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের কষ্ট অনেকটা লাঘব হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। যে সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এখনও গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষার বাহিরে আছে তারাও এই গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষার আওতায় আসবে বলে রাষ্ট্রপতি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ ২২টি গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণ।

 


 আরও পড়ুনঃ

 আরও পড়ুনঃ

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন