দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ’র বার্তা সম্পাদক মাহমুদা নাসরিনের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকীতে স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল

দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ’র প্রয়াত বার্তা সম্পাদক মাহমুদা নাসরিন।


নিজেস্ব প্রতিনিধিঃ
প্রকাশিত: ০১:১০ অপরাহ্ন, ২৮ জুন ২০২২

অনাড়ম্বর এবং আবেগঘন পরিবেশে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল এর মধ্যে দিয়ে পালিত হল দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ’র প্রয়াত বার্তা সম্পাদক মাহমুদা নাসরিনের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী।

সোমবার ২৭ জুন বিকেল ৪টার সময় পাবনা দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ কার্যালয়ে সম্পাদক নুরউদ্দিন শফি কাজলের সভাপতিত্বে উপস্থিত বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদক, সাংবাদিকবৃন্দ এবং নাসরিনের পরিবারের সদস‍্যবৃন্দ আবেগঘন পরিবেশে নাসরিনের কর্মজীবন এবং পারিবারিক জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে আলোচনা করেন।

আলোচনায় অংশ নিয়ে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এর জেলা প্রতিনিধি রফিকুল ইসলাম সুইট বলেন সাংবাদিক হিসাবে মাহমুদা নাসরিনের শালিনতা ভদ্রতা নারী সাংবাদিকদের জন‍্য উদহারণ হয়ে আছে।

দৈনিক বিবৃতির নির্বাহী সম্পাদক মাহবুব মোর্শেদ বাবলা বলেন দৈনিক স্বতঃকণ্ঠকে উর্দ্ধে তুলে ধরার ক্ষেত্রে মাহমুদা নাসরিনের কর্মনিষ্ঠা ছিল অতুলনীয়। একজন নারী সাংবাদিক হিসাবে তার পদচারনা ছিল অন‍্যদের জন‍্য অনুকরণীয়।

স্মরণ সভায় উপস্থিত থেকে আবেগজড়ানো কণ্ঠে বক্তব‍্য রাখেন নাসরিনের মেয়ে লিথিমনি। লিথি তার বক্তব্যে তার মায়ের কর্মজীবনের স্মৃতি তুলে ধরে সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।

সভায় উপস্থিত থেকে আলোচনায় অংশ গ্রহন করেন দৈনিক পাবনার বাণীর সম্পাদক খন্দকার আছাদুজ্জামান মিলন, জীবন কথার নির্বাহী সম্পাদক মাহাতাব হোসেন, সাংবাদিক রাশেদুল ইসলাম রাশেদ, সাংবাদিক সজিব হালদার, মাহমুদা নাসরিনের ছোট বোন জেসমিন, দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ’র নিজেস্ব প্রতিনিধি শিউলি আখতার, ইমন আহম্মেদ প্রমুখ।

দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ সম্পাদক তার বক্তব্যে বলেন, অসময়ে নাসরিনের এই চলে যাওয়া আমাদের পত্রিকার জন‍্য অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। দীর্ঘ বার বছর ধরে তিলে তিলে গড়ে ওঠা একজন আদর্শ নারী সাংবাদিককে আমরা হারিয়েছি।

স্মরণ সভা শেষে সংক্ষিপ্ত দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মাহমুদা নাসরিনের ছোট ভাই স্কুল শিক্ষক মাহফুজ।

 


 আরও পড়ুনঃ

 আরও পড়ুনঃ


একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন