নওগাঁয় আদিবাসীকে অপহরণের ৫ ঘন্টার মধ্যে উদ্ধার

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ মাদক আছে বলে ভয় দেখিয়ে অভিনব কায়দায় অপহরন করে এক আদিবাসী স্বজনদের নিকট থেকে মোবাইল ফোনে চাঁদা দাবীর ঘটনায় মাত্র ৫ ঘন্টার ব্যবধানে অপহৃত ব্যাক্তিকে উদ্ধার করে অপহরন ও চাঁদাদাবীর সাথে জরিত ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার ৯ মার্চ দুপুর ২ টায় নওগাঁ সদর মডেল থানায় প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ঘটনাটি সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন নওগাঁর অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার (ক্রাইম) মোঃ রাকিবুল আকতার।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার পংগী গ্রামের মৃত সনি পাহানের ছেলে রামলাল পাহান (৫৫) এর সাথে প্রতিবেশীদের জমি-জমা নিয়ে চলমান দেওয়ানী মামলা নং ৯১/১৭ সংক্রান্তে রবিবার ৮ মার্চ দুপুর ১ টায় অপহরনের শিকার হন (ভিকটিম) রামলাল পাহান (৫৫)।

আদালতে হাজিরা শেষে বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্যে বাসে ওঠার জন্য পায়ে হেটে জেলা সদরের বালুডাঙ্গা বাস ষ্টান্ডে যাওয়ার পথে বন-বিভাগ অফিসের সামনে পৌছালে অজ্ঞাত কয়েকজন প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে রামলাল পাহান এর পথরোধ করে তার কাছে মাদ্রকদ্রব্য আছে অভিযোগ তুলে প্রথমেই তাকে সু-কৌশলে অপহরনক করে।

পরে তাকে কয়েকটি স্থানে রেখে রামলাল পাহান এর ব্যবহারীত মোবাইল ফোন থেকে তার মামাত ভাই যোগেশ পাহান (৪৫) এর মোবাইল ফোনে কল দিয়ে প্রথমে এক লাখ টাকা মুক্তিপন করেন অপহরনকারীরা।

এসময় যদি টাকা না দেওয়া হয় তাহলে রামলাল পাহান (৫৫) কে মেরে ফেলারও হুমকিও দেন অপহরনকারীরা।

পরবর্তীতে অপহরনকারীরা ১৫ হাজার টাকা বিকাশ করার জন্য একটি বিকাশ নাম্বারও দেন।

এক পর্যায়ে ঘটনাটি প্রশাসনের কাছে পৌছালে, নওগাঁর জেলা পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম ও অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার (ক্রাইম) মোঃ রাকিবুল আকতার এর দিকনির্দেশনায় নওগাঁ সদর মডেল থানার ওসি সরোওয়ার্দী হোসেনের নের্তৃত্বে মডেল থানার এসআই (তদন্ত) ফয়সাল বিন আহসান ও এসআই (অপারেশান) তাজমিলুর রহমান, এসআই আব্দুল বারিক সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে (প্রযুক্তি ব্যবহার করার মাধ্যমে) অতিদ্রুত সুকৌশলে এক অভিযান চালিয়ে ঘটনার দিনই সন্ধ্যা ৭ টার সময় নওগাঁ সদরের পৌরসভার রজাকপুর ট্রাক টার্মিনাল এর পিছন থেকে অপহরনকারীদের গ্রেফতার করে।

প্রথমে হাতেনাতে ৪ জন অপহরনকারীকে গ্রেফতার করে রামলাল পাহান (৫৫) কে উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, কোমাইগারী পূর্বপাড়ার মৃত মকবুল হোসেন এর ছেলে আঃ ছালাম রঞ্জু (৬০), নওগাঁ সদর উপজেলার বাঙ্গাবাড়িয়া কলেজপাড়া গ্রামের মৃত ফরিদ হোসেনের ছেলে মনোয়ার হোসেন ওরফে টুটুল (৫০), পার-নওগাঁ দক্ষীনপাড়ার মৃত আজিজার ওরফে আজিজ এর ছেলে মামুন (৩৫) ও কোমাইগারী কোর্টের পেছনের রহমানের ছেলে তপু রায়হান ওরফে তপু (২৮)।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে বর্তমানে একাধীক মামলা বিচারাধীন আছে বলেও জানানো হয় প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে।

নওগাঁ সদর মডেল থানার ওসি সরোওয়ার্দী হোসেন জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে নওগাঁ সদর মডেল থানায় মামলা রুজু করে বিকালে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন