নওগাঁয় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরন

সুব্রত কিশোর হালদার, নওগাঁঃ নওগাঁ জেলায় একটি পূর্নাঙ্গ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের প্রস্তাব অনুমোদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসাথে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের বিষয়ে পরবর্তী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করতে বলা হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে এই কথা জানানো হয়।

গতকাল বুধবার এই তথ্য জানার পর ছাত্রলীগ আনন্দ মিছিল বের করে এবং জেলার সর্বস্থরের মানুষের মাঝে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়। অনেক স্থানে মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওই প্রজ্ঞাপনটি প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের পরিচালক-৭ মোহাম্মদ রফিকুল আলম ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ তারিখে স্বাক্ষরিত এক পত্রে শিক্ষা মন্ত্রনালয়, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-১, খাদ্যমন্ত্রীর একান্ত সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় পরিচালক-২ এর ব্যাক্তিগত কর্মকর্তার কাছে অনুলিপি প্রদান করেছেন।

প্রজ্ঞাপনের সূত্রে ২ ফেব্রুয়ারী ২০২০ তারিখের একটি আধা সরকারী পত্রের কথা উলে­খ করা হয়। ওই পত্রের প্রেক্ষিতে নওগাঁ জেলায় একটি পূর্নাঙ্গ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন করেছেন বলে উলে­খ করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টি স্থাপনের প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর পূর্ব ঘোষিত অভিপ্রায় অনুযায়ী আধা সরকারী ওই পত্রের মাধ্যমে আবেদন করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

প্রজ্ঞাপন প্রাপ্তির কথা নিশ্চিত করে নওগাঁ-১ (নিয়ামতপুর-পোরশা-সাপাহার) আসনের সাংসদ ও খাদ্রমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার জানান, শিগগিরিই বিশ্ববিদ্যালয়টি স্থাপনের কার্যক্রম শুরু হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ইতোমধ্যেই দুটি সম্ভাব্য স্থান পরিদর্শন করা হয়েছে। প্রস্তাবটি অনুমোদন করায় নওগাঁবাসীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

এদিকে প্রস্তাব অনুমোদনের খবর ছড়িয়ে পড়ার পর বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যায় নওগাঁ জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে শহরে আনন্দ মিছিল বের করা হয়। এতে নেতৃত্বদেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাব্বির রহমান রিজভী ও সাধারন সম্পাদক আমানুজ্জামান সিউল। আনন্দ মিছিলে সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেয়।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন