নাটোরের বড়াইগ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধে বৃদ্ধাকে মারধর- বাড়িঘর ভাঙ্গচুর

নাটোর প্রতিনিধিঃ নাটোরের বড়াইগ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে সুকোদা নামে আশিউর্দ্ধ এক বৃদ্ধাকে ইট পাটকেলের আঘাতে আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। এতে গুরুতর আহত হন তিনি।

মঙ্গলবার ২৭ জুলাই দুপুরে উপজেলার নগর ইউনিয়নের দোগাছি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এছাড়াও তার বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুর চালানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও বৃদ্ধার পরিবারসুত্রে জানা যায়, দোগাছি পশ্চিম পাড়া গ্রামের মৃত কায়মদ্দিন মন্ডলের স্ত্রী সুকোদা বেওয়া দুই ছেলেকে নিয়ে বসবাস করতেন।

মঙ্গলবার ২৭ জুলাই সকালে তার ছেলেরা সাংসারিক কাজে বাহিরে গেলে প্রতিপক্ষ আকুল হোসেন (৪৫)লোকজন নিয়ে বৃদ্ধা সুকোদার বাড়ির সীমানায় জোরপূর্বক টিনের চালার ঘর নির্মান করতে থাকে।

বৃদ্ধা সুকোদা বেওয়া বাঁধা দিলে আকুল ও তার লোকজন তাকে ইট দিয়ে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় নীলাফুলা জখম করে এবং ঘরে ঢুকে টিভি ফ্যান শোকেজ সহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙ্গচুর করে।

জোর করে বৃদ্ধাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয় এবং বাধা দিলে তাকে ও তার ছেলেদের হত্যার হুমকি দেয়।

পরে ট্রিপল নাইনে(৯৯৯) কল দিলে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। আহত বৃদ্ধা সুকোদাকে উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় বড়াইগ্রাম থানায় বৃদ্ধার ছেলে শামসুল হক বাদী হয়ে দোগাছি পুর্বপাড়া গ্রামে মৃত মাবুদ আলি মন্ডলের ছেলে মানিক হোসেন(৫৫),আকুল হোসেন(৪৫),আকুল হোসেনের স্ত্রী শরিফা বেগম(৪০),বাবর আলির ছেলে এবাদুল হোসেন(৫০),হানিফ মন্ডলের ছেলে পলাশ হোসেন(২৫),কালাম সাদ্দাম ও সনেকা বেগমের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।

এবং এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় এখন চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় বড় ধরনের সংঘর্ষের আশংখা করছেন এলাকার সচেতন মহল।

এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক রবিউল ইসলাম জানান ট্রিপল নাইনে ফোন পাওয়া মাত্রই আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করি। জমির দলিলপত্র নিয়ে উভয়পক্ষকে বৃহস্পতিবার থানায় ডাকা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ নাটোরর লালপুরে ক্ষতিগ্রস্থ পল্লী উদ্যোক্তাদের মাঝে প্রণোদনা ঋণ বিতরণ

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন