নোয়াখালীতে ওবায়দুল কাদেরের বাড়ির সামনে ককটেল বিস্ফোরণ, ৫ ককটেল উদ্ধার

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাটে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের গ্রামের বাড়ির সামনের সড়কে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে দুর্বৃত্তরা। 

তবে ঘটনাস্থল থেকে ৫টি অবিস্ফোরিত ককটেল ও ১ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করেছে পুলিশ। (২ আগস্ট) সোমবার  বিকেল ৪টার দিকে বসুরহাট পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের বড় রাজাপুর গ্রামের বসুরহাট থেকে দাগনভূঞা সড়কে এ ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুদ্দিন আনোয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি সুপ্রভাত চাকমা ঘটনাস্থলে রয়েছে।

তবে কে বা কারা দিনে দুপুরে এ ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটিয়েছে এ বিষয়ে ওসি কিছু জানতে পারেননি। স্থানীয় সূত্র জানায়, বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার অনুসারীরা এ ঘটনার জন্য কাদের মির্জার প্রতিপক্ষ দলীয় নেতাকর্মিদের দায়ী করছেন।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের মুখপাত্র মাহবুবুর রশীদ মঞ্জু বলেন, এটি একটি সাজানো নাটক।  বসুরহাট টু দাগনভূঞা সড়ক,এটি একটি আঞ্চলিক মহাসড়ক।

এ সড়কে বার বার ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে কাদের মির্জা ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায়। যুক্তরাষ্ট্র থেকে কাদের মির্জার নির্দেশে কোম্পানীগঞ্জকে অস্থিতিশীল রাখতে এবং প্রতিপক্ষের নেতাকর্মিদের ফাঁসানের জন্য তার অনুসারীরা এমন ঘটনা ঘটিয়ে।

এ সময় তিনি পুলিশ প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান তারা যেন বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রকৃত রহস্য উদঘাটন করে।

ওসি সাইফুদ্দিন আরও জানান, মন্ত্রী বাড়ির সামনে বসুরহাট টু দাগনভূঞা সড়কের ফাঁকা জায়গায় কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরিত হয়।   এ ছাড়া ৫টি অবিস্ফোরিত ককটেল ও একটি কার্তুজ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

আরও পরুনঃ নাটোরের বড়াইগ্রামে শিশু ধর্ষণের অভিযোগ, অভিযুক্ত আটক

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন