ঢাকা ০৮:৪৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

পদ্মায় জেলের জালে ১০ ফুট লম্বা ঘড়িয়াল

কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত সময় ০৩:৫২:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ নভেম্বর ২০২২
  • / 314

কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় প্রতিনিধি ঃ  কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় পদ্মা নদীতে জেলের জালে ধরা পড়েছে একটি ঘড়িয়াল। গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে বাহিরচর ইউনিয়নের লালনশাহ সেতুর নিচে পদ্মা নদীতে আবুল কালাম আজাদ নামের এক জেলের জালে পড়ে প্রায় ১০ ফুট লম্বা এই ঘড়িয়াল ধরা।

এরপর ঘড়িয়ালটি একনজর দেখতে ভিড় করে স্থানীয় শত শত মানুষ। বাহিরচর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আসাদুজ্জামান কচি জানান, বারোদাগ গ্রামের জেলে আবুল কালাম আজাদ, সজল, আশরাফুল, হোসেন আলী প্রতিদিনের মতো আজও (শুক্রবার) পদ্মায় মাছ ধরার জন্য জাল ফেলেন। সন্ধ্যায় জাল তোলার সময় তাঁরা দেখতে পান প্রায় ১০ ফুট লম্বা একটি ঘড়িয়াল জালে আটকে আছে। এ সময় অন্য জেলেদের সহযোগিতায় ঘড়িয়ালটি ধরে নদীর পাড়ে আনেন তাঁরা। পরে বন বিভাগে খবর দেওয়া হলে। বন বিভাগের কর্মকর্তারা রাত ৯ টার দিকে পদ্মা নদীতে ঘড়িয়ালটিকে অবমুক্ত করেন। এ নিয়ে জেলে মো. সজল বলেন, ‘পদ্মা নদীর লালনশাহ সেতুর নিচ থেকে মুনশিপাড়ার সাগর মুনশির বাড়ি পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার জুড়ে জাল ফেলি। সন্ধ্যায় জাল তোলার সময় ঘড়িয়ালটিকে জালে আটকে পড়া অবস্থায় দেখতে পাই। এ সময় ভয় পেলে কয়েক ঘণ্টা পানিতে খেলিয়ে ক্লান্ত করে ঘড়িয়ালটিকে ধরি।’ 

এ বিষয়ে ভেড়ামারা বন বিভাগের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘কুমির ধরা পড়েছে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। তবে এটি কুমির নয় ঘড়িয়াল। এরা মূলত মাছ খায়। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে আজ (শুক্রবার) রাত ৯ টার দিকে পদ্মা নদীতে এটিকে অবমুক্ত করা হয়।’

এই রকম আরও টপিক

পদ্মায় জেলের জালে ১০ ফুট লম্বা ঘড়িয়াল

প্রকাশিত সময় ০৩:৫২:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ নভেম্বর ২০২২

কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় প্রতিনিধি ঃ  কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় পদ্মা নদীতে জেলের জালে ধরা পড়েছে একটি ঘড়িয়াল। গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে বাহিরচর ইউনিয়নের লালনশাহ সেতুর নিচে পদ্মা নদীতে আবুল কালাম আজাদ নামের এক জেলের জালে পড়ে প্রায় ১০ ফুট লম্বা এই ঘড়িয়াল ধরা।

এরপর ঘড়িয়ালটি একনজর দেখতে ভিড় করে স্থানীয় শত শত মানুষ। বাহিরচর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আসাদুজ্জামান কচি জানান, বারোদাগ গ্রামের জেলে আবুল কালাম আজাদ, সজল, আশরাফুল, হোসেন আলী প্রতিদিনের মতো আজও (শুক্রবার) পদ্মায় মাছ ধরার জন্য জাল ফেলেন। সন্ধ্যায় জাল তোলার সময় তাঁরা দেখতে পান প্রায় ১০ ফুট লম্বা একটি ঘড়িয়াল জালে আটকে আছে। এ সময় অন্য জেলেদের সহযোগিতায় ঘড়িয়ালটি ধরে নদীর পাড়ে আনেন তাঁরা। পরে বন বিভাগে খবর দেওয়া হলে। বন বিভাগের কর্মকর্তারা রাত ৯ টার দিকে পদ্মা নদীতে ঘড়িয়ালটিকে অবমুক্ত করেন। এ নিয়ে জেলে মো. সজল বলেন, ‘পদ্মা নদীর লালনশাহ সেতুর নিচ থেকে মুনশিপাড়ার সাগর মুনশির বাড়ি পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার জুড়ে জাল ফেলি। সন্ধ্যায় জাল তোলার সময় ঘড়িয়ালটিকে জালে আটকে পড়া অবস্থায় দেখতে পাই। এ সময় ভয় পেলে কয়েক ঘণ্টা পানিতে খেলিয়ে ক্লান্ত করে ঘড়িয়ালটিকে ধরি।’ 

এ বিষয়ে ভেড়ামারা বন বিভাগের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘কুমির ধরা পড়েছে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। তবে এটি কুমির নয় ঘড়িয়াল। এরা মূলত মাছ খায়। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে আজ (শুক্রবার) রাত ৯ টার দিকে পদ্মা নদীতে এটিকে অবমুক্ত করা হয়।’