ঢাকা ১১:০৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ২য় শিফটে নিয়মিত ক্লাস চালু রাখার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৫:১৩:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • / 8

র ই রনি, পাবনাঃ একেতো পর্যাপ্ত শিক্ষক নেই এরপরও শিক্ষকদের লাগাতার কর্মবিরতির কারণে পাবনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর ২য় শিফটের শিক্ষার্থীদের ক্লাস বন্ধ রয়েছে বিগত চার দিন। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য মঙ্গলবার সকাল নয়টা থেকে সকল শিফটের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে একটি বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

এসময় শিক্ষার্থীরা জানান বিভিন্ন সময়ে শিক্ষকদের বেতন ও ভাতার দাবিতে আমাদের ক্লাস বন্ধ হয়ে যায় ফলে আমাদের শিক্ষা গ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। আমরা প্রথম শিফটের শিক্ষার্থীদের থেকে পিছিয়ে পরেছি। তারা আরো বলেন অবিলম্বে ক্লাস চালু না করা হলে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

এ ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আতিকুর রহমান জানান পাবনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট বর্তমানে একটি প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠান। প্রথম ও দ্বিতীয় শিফটে প্রায় ছয় হাজার শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে। শিক্ষার্থীদের অনুপাত অনুযায়ী আমাদের শিক্ষক সংখ্যা অনেক কম। আমাদের শিক্ষকেরা তাই সকাল আটটা থেকে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত ক্লাস করতে হয়।

শিক্ষকদের অতিরিক্ত পরিশ্রমের পারিশ্রমিক না পাওয়ায় শিক্ষকেরা এই আন্দোলন করছে। তিনি আরো বলেন আমরা চেষ্টা করছি যাতে অনতিবিলম্বে এই পরিস্থিতি থেকে উঠে আসতে পারি।

এই রকম আরও টপিক

পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ২য় শিফটে নিয়মিত ক্লাস চালু রাখার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

প্রকাশিত সময় ০৫:১৩:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২০

র ই রনি, পাবনাঃ একেতো পর্যাপ্ত শিক্ষক নেই এরপরও শিক্ষকদের লাগাতার কর্মবিরতির কারণে পাবনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর ২য় শিফটের শিক্ষার্থীদের ক্লাস বন্ধ রয়েছে বিগত চার দিন। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য মঙ্গলবার সকাল নয়টা থেকে সকল শিফটের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে একটি বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

এসময় শিক্ষার্থীরা জানান বিভিন্ন সময়ে শিক্ষকদের বেতন ও ভাতার দাবিতে আমাদের ক্লাস বন্ধ হয়ে যায় ফলে আমাদের শিক্ষা গ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। আমরা প্রথম শিফটের শিক্ষার্থীদের থেকে পিছিয়ে পরেছি। তারা আরো বলেন অবিলম্বে ক্লাস চালু না করা হলে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

এ ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আতিকুর রহমান জানান পাবনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট বর্তমানে একটি প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠান। প্রথম ও দ্বিতীয় শিফটে প্রায় ছয় হাজার শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে। শিক্ষার্থীদের অনুপাত অনুযায়ী আমাদের শিক্ষক সংখ্যা অনেক কম। আমাদের শিক্ষকেরা তাই সকাল আটটা থেকে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত ক্লাস করতে হয়।

শিক্ষকদের অতিরিক্ত পরিশ্রমের পারিশ্রমিক না পাওয়ায় শিক্ষকেরা এই আন্দোলন করছে। তিনি আরো বলেন আমরা চেষ্টা করছি যাতে অনতিবিলম্বে এই পরিস্থিতি থেকে উঠে আসতে পারি।