পাবনার চাটমোহরে নিখোঁজের ২দিন পর লাশ উদ্ধার

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধিঃ পাবনার চাটমোহরের হান্ডিয়ালে নিখোঁজের দুই দিন পর চলনবিলের পানিতে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া গেল সিএনজি অটোরিকশা চালক ইমন হাসান (১৬) এর লাশ।

শুক্রবার (২০ আগস্ট) দুপুর ১২টার দিকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত ইমন হাসান পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলার নিমাইচড়া ইউনিয়নের মাঝগ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে। পরিবারের দাবি, তার সিএনজি অটোরিকশা ছিনতাইয়ের জন্য ইমনকে হত্যা করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার সকালে চাটমোহর-মান্নাননগর সড়কের হান্ডিয়াল দরাপপুর ব্রিজের পাশে বিলের পানিতে একজনের লাশ ভাসতে দেখে থানায় খবর দেয় স্থানীয়রা।

পরে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠনো হবে বলে জানা গেছে।

ইমন হাসানের বাবা জাকির হোসেন বলেন, গত বুধবার (১৮ আগস্ট) সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়। রাত দশটার দিকে হান্ডিয়াল মান্নাননগর থেকে চারজন যাত্রী ভাড়া নিয়ে চাটমোহরের উদ্দশ্যে রওনা হয়। তারপর থেকে ইমনের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। তার মুঠোফোনও বন্ধ ছিল। অনেক খোঁজাখুঁজি করে সন্ধান না পেয়ে চাটমোহর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়। লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে দেখি লাশটি আমার ছেলে ইমনের।

এ বিষয়ে চাটমোহর সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার সজিব শাহরীন বলেন, উদ্ধারকৃত লাশ নিখোঁজ সিএনজি অটোরিকশা চালক ইমনের। তার পরিবারের লোকজন লাশটি শনাক্ত করেছেন। দড়ি দিয়ে তার হাত-পা বাঁধা ছিল।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তাকে হত্যা করে লাশ ফেলে গেছে দূর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আরও পড়ুনঃ পাবনার চাটমোহরে ০৪ সন্তানের পিতার আত্মহত্যা

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন