পাবনার ফরিদপুরে বস্তাবন্দি শিশুর লাশ উদ্ধার আটক ৪

ফরিদপুর (পাবনা) প্রতিনিধিঃ পাবনার ফরিদপুর উপজেলার সোনাহারা গ্রামের নিখোঁজের তিনদিন পর বাড়ির পাশে নির্মাণাধীন বাড়ি থেকে বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

এ ব্যাপারে ৪ জনকে থানায় এনে জিঞ্জাসাবাদ করা হচ্ছে বলে ওসি জানান।

তারা হলেন সোনাহারা গ্রামের এরশাদ, তার স্ত্রী নার্গিস, পুত্র নাইম (১৩) ও বাড়ির মালিক রহমত।

নিহত সুমনার (৪) বাবা-মা জানান, গত ১৪ মার্চ বেলা দশটার পর হতে সুমনাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে না পেয়ে গত ১৫ মার্চ থানায় হারানো জিডি করে সুমনার বাবা সজিব।

সজিবের প্রতিবেশী মরিয়ম বলেন, ঘরে পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় দুর্গন্ধ পেয়ে ঘরের বারান্দায় উকি দিলে বস্তায় শিশুর লাশ দেখতে পায়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

ফরিদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম আবুল কাশেম আজাদ জানান, লাশ দেখে ধারণা করা হচ্ছে গত ১৪ মার্চ সুমনা নিখোঁজের পরই তাকে গলা টিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

নির্মাণাধীন ঘরটি এরশাদ দেখাশোনা করত এবং ঘরের চাবি তাদের কাছে থাকত। প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদে নাইম হত্যার দায় স্বীকার করেছে।তবে মূল্য রহস্য উদঘাটনের সৃষ্টা ও মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

হত্যার সাথে আরও কেউ জড়িত থাকতে পারে বলে এলাকাবাসীর ধারনা।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন