পাবনার ভাঙ্গুড়ায় পিতা-পুত্রকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

(পাবনা)প্রতিনিধিঃ পাবনার ভাঙ্গুড়ায় পূর্ব শত্রæতার জেরে গোলাম মোস্তফা(৪০) ও তার ছেলে রাকিব ইসলাম(১৬) হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

এতে গোলাম মোস্তফার বাম হাত প্রায় বিছিন্ন হয়েছে ও তার ছেলে রাকিব ঘাড়ে গুরুতর আঘাত প্রাপ্ত হয়েছে। মোজাম্মেল(৪০),মধু(৪৮)মোন্নাফ(৩৩) ও ফয়সাল(১৮) নামের চারজন মিলে এঘটনা ঘটিয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলা অষ্টমনিষা ইউনিয়নের গদাই রুপসী গ্রামে এঘটনা ঘটে।

জানা গেছে তারা সবাই ভাঙ্গুড়ার গদাই রুপসী এলাকা বাসিন্দা ও মধু, মোজাম্মেল , মুন্নাফ গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে । আহত দুজনকে পারিবারের লোকজন উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে উন্নত চিকৎসার জন্য তাদের পাবনা মেডিক্যাল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঘটনার বিষয়ে থানায় মামলা দায়েরর প্রস্তুতি চলছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গোলাম মোস্তফা গং ও মোজাম্মেল গং এর মধ্যে বাড়ির পাশের জলকর নিয়ে
দীর্ঘ দিন বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দিন আহত গোলাম হোসেন বিরোধপূর্ণ জলকরে পানি সেচার জন্য তিনটি স্যালো মেশিন বসায়।

অভিযুক্তরা ওই স্যালো মেশিন ভাংচুর করতে থাকে এসময় গোলাম মোস্তফা ও তার পুত্র বাধা দিতে গেলে তাদের দুজকে হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা করে। আহতদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়।

আহত দুজনকে পারিবারের লোকজন উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে উন্নত চিকৎসার জন্য তাদের পাবনা মেডিক্যাল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনার পার থেকে অভিযুক্তরা পালাতক রয়েছে বলে জানা গেছে।

ভাঙ্গুড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক বলেন, আহতদের তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। এসময় তিনি আরও বলেন, গোলাম হোসেনের কব্জি ধারালো কিছুর আঘাতে প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে প্রচুর রক্ত ক্ষরণ হয়েছে রাজিবের গলায়ও ধারালো কিছুর আঘাতে গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে সেখানেও প্রচুর রক্তপাত হয়েছে।

ঘটনার বিষয়ে ভাঙ্গুড়া থানার ওসি মুঃ ফয়সাল বিন আহসান বলেন, ঘটনা ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশ অবগত রয়েছে। ঘটনা স্থল পুলিশ পরিদর্শন করেছেন। তবে অভিযুক্তরা পলাতক থাকায় তাদের কাউকে পাওয়া যায় নি। ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃপাবনার ভাঙ্গুড়ায় ঘর থেকে ডেকে নিয়ে যুবককে গলা কেটে হত্যা চেষ্টা !

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন