পাবনার শীর্ষ সন্ত্রাসী ইয়াবা শাহীন আটক, অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার

সাঁথিয়া(পাবনা) প্রতিনিধিঃ পাবনার শীর্ষ সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী শাহীন আলম ওরফে কালু (৩৫)কে গনেশপুর থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

সে সাঁথিয়া উপজেলার ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের গনেশপুর গ্রামের মৃত রইচ উদ্দিনের ছেলে। শাহীন আলমের নিকট থেকে বিদেশী রিভালবাল,গুলি, গাজা, ইয়াবা, মদ উদ্ধার করা হয়।
র‌্যাবের প্রেস রিলিজ সূত্রে জানাযায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব- ১২, সিপিসি-২ এর কোম্পানী কমান্ডার কিশোর রায়ের নেতৃত্বে ২৬ আগস্ট ভোরে উপজেলার গনেশপুর অভিযান চালিয়ে মাদক ব্যবসায়ী জেলার শীর্ষ সন্ত্রাসী শাহীন আলম ওরফে কালুকে আটক করা হয়।

তার নিকট থেকে ১টি বিদেশী রিভালবার, ৫ রাউন্ড গুলি, ১৬৪ পিচ ইয়াবা, ২ বোতল বিদেশী মদ ও ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে র‌্যাব। র‌্যাব জানান, শাহীন জেলার শীর্ষ সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী।

সে ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক বিক্রয় করত এবং অবৈধ অস্ত্র দেখিয়ে চাঁদাবাজি করত। র‌্যাব আরও জানান শাহীন তার অবৈধ ভাবে উপার্জিত টাকা দেশের বাইরে পাচার করে আসছিল।

এলাকা সূত্রে জানাযায়, শাহীন আলম ওরফে কালু ২০১৩ সালের পূর্বে অন্যর দোকানে কাজ করত। ৮ বছরের ব্যাবধানে সে এখন কয়েক কোটি টাকার মালিক। তার নামে বেনামে বিভিন্ন ব্যাংকে কয়েক কোটি টাকা রয়েছে বলে একটি সূত্র জানান।

সে এলাকায় চাঁদাবাজিসহ সন্ত্রাসী গ্রুপ তৈরি করে করত। এমনকি চট্রগ্রামের কক্সবাজার থেকে মাদক সংগ্রহ করে পাবনায় বিক্রয় করত। ৮ বছর আগে যার একটি টিনের ঘর ছিল।

এখন তার গ্রামের বাড়িতে আলিসান দুতলা বাড়ি ও মাঠে স্ত্রীর নামে রয়েছে প্রায় ১০ বিঘা জমি। শাহীনের আটকের সংবাদে উপজেলার সাধারণ মানুষের মধ্যে স্বস্থি ফিরে এসেছে। এদিকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় র‌্যাব শাহীন আলমকে সাঁথিয়ার আতাইকুলা থানায় হস্তান্তর করেন। তার বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্র আইনে র‌্যাব মামলা রুজু করেন।

আরও পড়ুনঃ পাবনাতে প্রতিবন্ধী নারীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় আটক ১

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন