ঢাকা ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

পাবনায় ইছামতি নদীর দুই পাড়ের বৈধ বসতিদের স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৭:১৩:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০
  • / 17

পাবনা ইছামতি নদীর দুই পাড়ের বৈধ বসতিদের স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ১১ টায় পৈলানপুরে ইছামতি নদীর দুই পাড়ের বৈধ বসতিদের স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির সভায় বক্তারা বলেছেন ২০০৮ সনের ১ জুলাই ভ’মিমন্ত্রণালয়ের মহা-পরিচালক সচিব মাহবুবুর রহমানের মাসিক সভায় সিএস, এসএ এবং আরএস খতিয়ানের পারস্পারি গুরুত্ব ও খাজনার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। সেই সভার সিদ্ধান্তে সংশ্লিষ্ট সকলের জন্য জানানো হয় যে, ১৯৫০ সনের রাষ্ট্রীয় অধীগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইনের ১৪৪ ধারার ৭-উপধারা এই আইনের অধীনে প্রণীত ১৯৫৫ সনের প্রজাস্বত্ব বিধিমালার ৩৪(২) বিধি মোতাবেক সর্বশেষ জরিপের মাধ্যমে গেজেট আকারে প্রকাশিত রেকর্ড (খতিয়ান ও ম্যাপ) মালিকানা বা স্বত্ব নির্ধারনের ক্ষেত্রে চুড়ান্ত বলে গণ্য হবে। সেই মোতাবেক গত ৩১-১২-২০০৭ ইং সাবেক পাবনা জেলা প্রশাসক গোলাম মওলা ইছামতি নদী পূণঃখননের জন্য দিয়ারা জরিপ হওয়ার পর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ প্রসংগে পাবনা পৌর সভাকে পত্র প্রেরণ করেন। বক্তাগণ ইছামতি নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের কার্য ক্রমে বৈধ বসতিরা যাতে ক্ষতিগ্রস্থ না হয় তার জন্য পাবনা জেলা প্রশাসনসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। কমিটির সভাপতি মাসুদুর রহমান মিন্টুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আল- মাসুদ রিজভী ম্যাক্সিম এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন হাজী শরীফ, এড. নাজমুল হোসেন শাহীন, এড. আবুল কালম আজাদ, পাভেল হাসান জাহাঙ্গীর, সাহিদ হাসনায়েন, মাসুদ রানা, হাবিবুর রহমান বাবলু, আবুল ওহাব প্রমুখ। সভায় ইছামতি নদীর দুই পাড়েরর শতশত বসতিরা অংশ নেয়।

পাবনায় ইছামতি নদীর দুই পাড়ের বৈধ বসতিদের স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত সময় ০৭:১৩:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০

পাবনা ইছামতি নদীর দুই পাড়ের বৈধ বসতিদের স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ১১ টায় পৈলানপুরে ইছামতি নদীর দুই পাড়ের বৈধ বসতিদের স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির সভায় বক্তারা বলেছেন ২০০৮ সনের ১ জুলাই ভ’মিমন্ত্রণালয়ের মহা-পরিচালক সচিব মাহবুবুর রহমানের মাসিক সভায় সিএস, এসএ এবং আরএস খতিয়ানের পারস্পারি গুরুত্ব ও খাজনার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। সেই সভার সিদ্ধান্তে সংশ্লিষ্ট সকলের জন্য জানানো হয় যে, ১৯৫০ সনের রাষ্ট্রীয় অধীগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইনের ১৪৪ ধারার ৭-উপধারা এই আইনের অধীনে প্রণীত ১৯৫৫ সনের প্রজাস্বত্ব বিধিমালার ৩৪(২) বিধি মোতাবেক সর্বশেষ জরিপের মাধ্যমে গেজেট আকারে প্রকাশিত রেকর্ড (খতিয়ান ও ম্যাপ) মালিকানা বা স্বত্ব নির্ধারনের ক্ষেত্রে চুড়ান্ত বলে গণ্য হবে। সেই মোতাবেক গত ৩১-১২-২০০৭ ইং সাবেক পাবনা জেলা প্রশাসক গোলাম মওলা ইছামতি নদী পূণঃখননের জন্য দিয়ারা জরিপ হওয়ার পর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ প্রসংগে পাবনা পৌর সভাকে পত্র প্রেরণ করেন। বক্তাগণ ইছামতি নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের কার্য ক্রমে বৈধ বসতিরা যাতে ক্ষতিগ্রস্থ না হয় তার জন্য পাবনা জেলা প্রশাসনসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। কমিটির সভাপতি মাসুদুর রহমান মিন্টুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আল- মাসুদ রিজভী ম্যাক্সিম এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন হাজী শরীফ, এড. নাজমুল হোসেন শাহীন, এড. আবুল কালম আজাদ, পাভেল হাসান জাহাঙ্গীর, সাহিদ হাসনায়েন, মাসুদ রানা, হাবিবুর রহমান বাবলু, আবুল ওহাব প্রমুখ। সভায় ইছামতি নদীর দুই পাড়েরর শতশত বসতিরা অংশ নেয়।