ঢাকা ১০:২৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

পাবনায় জমি নিয়ে বিরোধে প্রাণ গেল যুবকের

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৯:৫৫:২১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯
  • / 8

পাবনায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রাণ গেল মামুন খলিফা (২৮) নামের এক ব্যক্তি’র নিহত হয়েছেন। নিহত মামুন সদর উপজেলার রামানন্দপুর গ্রামের মোঃ শভর খলিফা’র ছেলে।

গত মঙ্গলবার (০৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে জমি নিয়ে বিরোধে কিছু সন্ত্রাসী মামুনকে এলোপাতারী ছুরিকাঘাত করে চলে যায়, এলাকাবাসী ও তার পরিবার খবর পেয়ে ঘটনা স্থল থেকে উদ্ধার করে, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার দুপুর ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়। সে পাবনা’র একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের পোশাক কারখানায় কর্মরত ছিলেন।

এঘটনায় তার পরিবার জানান, বাড়ি করা নিয়ে প্রতিবেশীদের সাথে বিরোধ ছিলছিলো আমাদের ,এঘটনাকে কেন্দ্র করে এই হত্যা’র ঘটনা ঘটেছে বলে জানান।

পাবনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ওবাইদুল হক জানান, সদর উপজেলার রামানন্দপুর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধে হত্যা’র ঘটনার এখনো কোন অভিযোগ পত্র দায়ের করেনি তার পরিবার।

পাবনায় জমি নিয়ে বিরোধে প্রাণ গেল যুবকের

প্রকাশিত সময় ০৯:৫৫:২১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

পাবনায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রাণ গেল মামুন খলিফা (২৮) নামের এক ব্যক্তি’র নিহত হয়েছেন। নিহত মামুন সদর উপজেলার রামানন্দপুর গ্রামের মোঃ শভর খলিফা’র ছেলে।

গত মঙ্গলবার (০৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে জমি নিয়ে বিরোধে কিছু সন্ত্রাসী মামুনকে এলোপাতারী ছুরিকাঘাত করে চলে যায়, এলাকাবাসী ও তার পরিবার খবর পেয়ে ঘটনা স্থল থেকে উদ্ধার করে, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার দুপুর ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়। সে পাবনা’র একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের পোশাক কারখানায় কর্মরত ছিলেন।

এঘটনায় তার পরিবার জানান, বাড়ি করা নিয়ে প্রতিবেশীদের সাথে বিরোধ ছিলছিলো আমাদের ,এঘটনাকে কেন্দ্র করে এই হত্যা’র ঘটনা ঘটেছে বলে জানান।

পাবনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ওবাইদুল হক জানান, সদর উপজেলার রামানন্দপুর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধে হত্যা’র ঘটনার এখনো কোন অভিযোগ পত্র দায়ের করেনি তার পরিবার।