ঢাকা ০২:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

পাবনায় তীব্র শীতে জনজীবন স্থবির : জেলা প্রশাসকের শীতবস্ত্র বিতরণ

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৯:২০:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ ডিসেম্বর ২০১৯
  • / 12

পাবনায় গত কয়েক দিন ধরে বইছে শৈতপ্রবাহ। ফলে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। প্রচন্ড শীত আর হিমেল বাতাসে সাধারন মানুষের জনজীবন স্থবির হয়ে পরেছে ।

প্রয়োজন ছাড়া বের হচ্ছে না সাধারন কর্মক্ষম মানুষ। বেকায়দায় পরেছে নিম্ন ও মধ্যম আয়ের মানুষগুলো। শীতকে উপেক্ষা করেই কাজে বের হচ্ছে এ শ্রেণীর মানুষরা।

প্রচন্ড শীতের মধ্যে জুবুথুবু খাচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধরা। একটু উষ্ণ পেতে অনেকেই খড়কুটোতে আগুন জ্বালিয়ে তাপ নিচ্ছে।

আর সকালে ঘন কুয়াশার কারনে ধীরগতিতে চলাচল করতে দেখা গেছে দুরপাল্লার গাড়ি গুলো। দেখা মিলছে না সূর্যের।

মাঝে মধ্যে সূর্ষের দেখা মিনলেও কমছে না শীতের তীব্রতা। স্থানীয় আবহাওয়া অফিস আজ শনিবার সকাল পর্যন্ত সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করে ১০ দশমিক ৩ ডিগ্রী।

এদিকে এই প্রচন্ড শীতে শীতার্ত মানুষের পাশে গিয়ে দাড়ালেন পাবনা জেলা প্রশাসন।

শুক্রবার জেলা প্রশাসন ও জেলা ত্রার্ন ও দুর্যোগ অধিপ্তরের উদ্যোগে সন্ধ্যা হতে রাত ২ টা পর্যন্ত সদর উপজেলার মঈন উদ্দিন চিশ্তী এতিমখানা,শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে রিক্সাচালকদের, সিংগা মানব কল্যাণ ট্রাস্ট এর অধ্যায়নরত প্রতিবন্ধীদের এবং ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশন সহ বিভিন্ন স্থানে তৃর্ণমূল মানুষের দাড়ে দাড়ে গিয়ে শীতবস্ত্র প্রদান করেন জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ।

এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোখলেছুর রহমান, জেলা ত্রার্ন ও দুর্যোগ কর্মকর্তা রেজাউল করিম,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন, ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিহাব রায়হান,জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের প্রভেশন অফিসার শায়েখ ইবনে পল্লব,সহ জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা- কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পাবনায় তীব্র শীতে জনজীবন স্থবির : জেলা প্রশাসকের শীতবস্ত্র বিতরণ

প্রকাশিত সময় ০৯:২০:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ ডিসেম্বর ২০১৯

পাবনায় গত কয়েক দিন ধরে বইছে শৈতপ্রবাহ। ফলে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। প্রচন্ড শীত আর হিমেল বাতাসে সাধারন মানুষের জনজীবন স্থবির হয়ে পরেছে ।

প্রয়োজন ছাড়া বের হচ্ছে না সাধারন কর্মক্ষম মানুষ। বেকায়দায় পরেছে নিম্ন ও মধ্যম আয়ের মানুষগুলো। শীতকে উপেক্ষা করেই কাজে বের হচ্ছে এ শ্রেণীর মানুষরা।

প্রচন্ড শীতের মধ্যে জুবুথুবু খাচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধরা। একটু উষ্ণ পেতে অনেকেই খড়কুটোতে আগুন জ্বালিয়ে তাপ নিচ্ছে।

আর সকালে ঘন কুয়াশার কারনে ধীরগতিতে চলাচল করতে দেখা গেছে দুরপাল্লার গাড়ি গুলো। দেখা মিলছে না সূর্যের।

মাঝে মধ্যে সূর্ষের দেখা মিনলেও কমছে না শীতের তীব্রতা। স্থানীয় আবহাওয়া অফিস আজ শনিবার সকাল পর্যন্ত সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করে ১০ দশমিক ৩ ডিগ্রী।

এদিকে এই প্রচন্ড শীতে শীতার্ত মানুষের পাশে গিয়ে দাড়ালেন পাবনা জেলা প্রশাসন।

শুক্রবার জেলা প্রশাসন ও জেলা ত্রার্ন ও দুর্যোগ অধিপ্তরের উদ্যোগে সন্ধ্যা হতে রাত ২ টা পর্যন্ত সদর উপজেলার মঈন উদ্দিন চিশ্তী এতিমখানা,শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে রিক্সাচালকদের, সিংগা মানব কল্যাণ ট্রাস্ট এর অধ্যায়নরত প্রতিবন্ধীদের এবং ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশন সহ বিভিন্ন স্থানে তৃর্ণমূল মানুষের দাড়ে দাড়ে গিয়ে শীতবস্ত্র প্রদান করেন জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ।

এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোখলেছুর রহমান, জেলা ত্রার্ন ও দুর্যোগ কর্মকর্তা রেজাউল করিম,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন, ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিহাব রায়হান,জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের প্রভেশন অফিসার শায়েখ ইবনে পল্লব,সহ জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা- কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।