পাবনায় প্রথম পতাকা উত্তোলন দিবস আজ

কাজী বাবলা, পাবনাঃ আজ ঐতিহাসিক ২৩ মার্চ। পাবনায় প্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়। ১৯৭১ সালের এই দিনে তৎকালিন পাবনা টাউন হলের ছাদে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা উত্তোলন করেন তৎকালিন পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক রফিকুল ইসলাম বকুল।

করোনা জনিত কারনে মহান মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহাসিক এই দিনটি স্বরণে এবারে কোন কর্মসূচী পালন করা হবে না।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের ২৩ মার্চ প্রতিরোধ দিবস পালন উপলক্ষে টাউন হল ময়দানে বিশাল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। বক্তব্য শেষে ঐদিন বেলা ১১টায় টাউন হল ভবনের ছাদে উঠে পাকিস্তানের পতাকা পুড়িয়ে দিয়ে মাঠে উপস্থিত হাজার হাজার মানুষের বিপুল করতালি আর জয়বাংলা শ্লোগানের মধ্যে দিয়ে পাবনায় প্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন বীর মুক্তিযুদ্ধা রফিকুল ইসলাম বকুল।

পতাকা উত্তোলনের সময় টাউন হলের ছাদে রফিকুল ইসলাম বকুলের পাশে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযুদ্ধা জহুরুল ইসলাম বিশু, মো: ইকবাল হোসেন, মো: গোলাম মাহমুদ, সাহাবুদ্দিন চুপ্পু, ফজলুল হক মন্টুসহ আরো বেশ কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা।

ঐ দিন যে পতাকাটি উত্তোলন করা হয়েছিল তা সেদিন রফিকুল ইসলাম বকুলের কাছে পৌছে দিয়েছিলেন তৎকালিন জেলা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক মো: আবুল কাশেম উজ্জ্বল।

টাউন হলের সমাবেশ শেষে বিকাল ৪টায় পুলিশ লাইন মাঠে রফিকুল ইসলাম বকুলের নেতৃত্বে জেলা স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীর এক বিশাল মহড়া অনুষ্ঠিত হয়। একই দিন বিকালে পাবনা ডিসি অফিসের ছাদ থেকে পাকিস্তানের পতাকা নামিয়ে সেখানে বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম।

মহান মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহাসিক এই দিনটি স্বরণে রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা কর্মসূচীর মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের কাছে মহান মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে দিবসটি স্বরণ করেন। কবে এবার করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত কারনে কোন কর্মসূচী পালন করা হচ্ছে না।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন