ঢাকা ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

পাবনা জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন এর উদ্যেগে পাবিপ্রবি ভর্তিচ্ছুক পরীক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের বিনা খরচে থাকা ও খাওয়ার আয়োজন

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৫:২৯:২৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯
  • / 21

আগামীকাল অনুষ্ঠিত পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিচ্ছুক প্রায় ২৫ হাজার পরীক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকদের বিনা খরচে থাকা ও খাওয়ার আয়োজন করে আতিথেয়তার এক অন্যন্য নজির সৃষ্টি করেছে স্থানীয় প্রশাসন সহ পাবনার সাধারন মানুষ।

এ বিশাল কর্মজজ্ঞেরে আয়োজন চলছে জন্য পৌর এলাকার ৪৭টি স্কুল, মসজিদ, মন্দির মাদ্রাসা সহ বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানে।যে আয়োজনে যুক্ত হয়েছে জেলার সব শ্রেনী পেশার মানুষ।

সকালে এ কার্যক্রম তদারকি করেন পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম । পাবনার পুলিশ লাইনস মাঠ ও স্কুলে পুলিশ সুপার খুলেছেন মেহমানখানা। যেখানে ২শ নারী এবং ৪শ পুরুষের জন্য থাকবে থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা।

তাদের নিরাপত্তায় থাকেব প্রায় একশ পুলিশ।মহৎ এ কর্মযজ্ঞে প্রায় অর্ধশত সেচ্ছা সেবী প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত হয়েছে রাজনৈতিক দলও।

জেলা যুবলীগের কমীরা প্রায় একশ মোটর সাইকেলসহবিভিন্ন পরিবহন পরীক্ষার্থীদের বাস টার্মিনাল থেকে তাদের অস্থায়ী আবাসন এবং দ্রুত পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌছে দেয়ার কাজ করবে বলে জানান পাবনা জেলা যুবলীগের আহবায়ক আলী মর্তুজা বিশ্বাস সনি।

মহতি এ উদ্যোগের মুল উদ্যোক্তা পাবনার জেলা প্রশাসক কবির মাহমুদ । তিনি বিগত বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের দুভোগের কথা চিন্তা করে সব শ্রেনী পেশার মানুষকে সাথে নিয়ে ব্যতিক্রমী এ আতিথেয়তার আয়োজন করেন।

পাবনা জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন এর উদ্যেগে পাবিপ্রবি ভর্তিচ্ছুক পরীক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের বিনা খরচে থাকা ও খাওয়ার আয়োজন

প্রকাশিত সময় ০৫:২৯:২৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

আগামীকাল অনুষ্ঠিত পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিচ্ছুক প্রায় ২৫ হাজার পরীক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকদের বিনা খরচে থাকা ও খাওয়ার আয়োজন করে আতিথেয়তার এক অন্যন্য নজির সৃষ্টি করেছে স্থানীয় প্রশাসন সহ পাবনার সাধারন মানুষ।

এ বিশাল কর্মজজ্ঞেরে আয়োজন চলছে জন্য পৌর এলাকার ৪৭টি স্কুল, মসজিদ, মন্দির মাদ্রাসা সহ বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানে।যে আয়োজনে যুক্ত হয়েছে জেলার সব শ্রেনী পেশার মানুষ।

সকালে এ কার্যক্রম তদারকি করেন পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম । পাবনার পুলিশ লাইনস মাঠ ও স্কুলে পুলিশ সুপার খুলেছেন মেহমানখানা। যেখানে ২শ নারী এবং ৪শ পুরুষের জন্য থাকবে থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা।

তাদের নিরাপত্তায় থাকেব প্রায় একশ পুলিশ।মহৎ এ কর্মযজ্ঞে প্রায় অর্ধশত সেচ্ছা সেবী প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত হয়েছে রাজনৈতিক দলও।

জেলা যুবলীগের কমীরা প্রায় একশ মোটর সাইকেলসহবিভিন্ন পরিবহন পরীক্ষার্থীদের বাস টার্মিনাল থেকে তাদের অস্থায়ী আবাসন এবং দ্রুত পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌছে দেয়ার কাজ করবে বলে জানান পাবনা জেলা যুবলীগের আহবায়ক আলী মর্তুজা বিশ্বাস সনি।

মহতি এ উদ্যোগের মুল উদ্যোক্তা পাবনার জেলা প্রশাসক কবির মাহমুদ । তিনি বিগত বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের দুভোগের কথা চিন্তা করে সব শ্রেনী পেশার মানুষকে সাথে নিয়ে ব্যতিক্রমী এ আতিথেয়তার আয়োজন করেন।