ঢাকা ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

প্লাস্টিকবর্জ্যে বিপর্যস্ত কলাপাড়ার নদ-নদী ও বনাঞ্চল

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৩:৫৩:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ জানুয়ারী ২০২০
  • / 32

প্রতিদিনই কুয়াকাটা সৈকতসহ বিভিন্ন নদীর তীরে ভেসে আসছে প্লাস্টিক বর্জ্য। যা পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি করছে। হুমকির মুখে পরেছে বিভিন্ন নদী তীরের সবুজ দেয়াল।

সম্প্রতি ভেসে আসা এসব প্লাষ্টিক বর্জ্যরে ক্ষতি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও আপলোড করেছেন বে-সরকারী উন্নয়ন সংস্থা “পাথওয়ে” এর নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শাহিন। মুহূর্তেই ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়।

শাহিন তার ভিডিওতে উল্লেখ করেন, পটুয়াখালীর কলাপাড়া রাবনা নদীর চরটিতে অসংখ্য প্লাষ্টিক বর্জ্য তীরে ভেসে এসে মাটির সাথে মিশে যাচ্ছে। ফলে কমছে মাটির উর্বরতা ।

একদিকে জেলেরাও যেমন পানির বোতলসহ নিজেদের নানা অপ্রয়োজনীয় উপকরণ ফেলছেন নদীতে।

তেমনি নদী তীরের মানুষও ফেলছেন সমানতালে। তাই জেলেসহ সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে নদী তীরের এসব বর্জ্য কুড়িয়ে আগুণে ধ্বংসের দৃশ্য ধারণ করে আপলোড় করেছেন তিনি।


সাধারণভাবে প্লাস্টিক পচনশীল বস্তু নয়। তাই এসব প্লাস্টিক বর্জ্য দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতিকর প্রভাব সৃষ্টি করে পরিবেশে । আর মানুষের অসচেতনতাই এই প্লাস্টিক দূষণের প্রধান কারণ।

এ দূষণে মারাত্মক ক্ষতিতে পড়ছে উদ্ভিদকূল, জলজ প্রাণী, দ্বীপ অঞ্চলের প্রাণীকূল।

প্লাস্টিক বর্জ্য নদীতে বসবাসকারী বিভিন্ন প্রাণীর বাসস্থান, খাদ্য সংগ্রহের স্থান ও উদ্ভিদের খাদ্য গ্রহণের পথে বাধার সৃষ্টি করে।

শুধুমাত্র উদ্ভিদ বা জলজ প্রাণী নয়, মানুষ প্লাস্টিক দূষণের কারণে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন পরিবেশবিদরা ।

প্লাস্টিকবর্জ্যে বিপর্যস্ত কলাপাড়ার নদ-নদী ও বনাঞ্চল

প্রকাশিত সময় ০৩:৫৩:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ জানুয়ারী ২০২০

প্রতিদিনই কুয়াকাটা সৈকতসহ বিভিন্ন নদীর তীরে ভেসে আসছে প্লাস্টিক বর্জ্য। যা পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি করছে। হুমকির মুখে পরেছে বিভিন্ন নদী তীরের সবুজ দেয়াল।

সম্প্রতি ভেসে আসা এসব প্লাষ্টিক বর্জ্যরে ক্ষতি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও আপলোড করেছেন বে-সরকারী উন্নয়ন সংস্থা “পাথওয়ে” এর নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শাহিন। মুহূর্তেই ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়।

শাহিন তার ভিডিওতে উল্লেখ করেন, পটুয়াখালীর কলাপাড়া রাবনা নদীর চরটিতে অসংখ্য প্লাষ্টিক বর্জ্য তীরে ভেসে এসে মাটির সাথে মিশে যাচ্ছে। ফলে কমছে মাটির উর্বরতা ।

একদিকে জেলেরাও যেমন পানির বোতলসহ নিজেদের নানা অপ্রয়োজনীয় উপকরণ ফেলছেন নদীতে।

তেমনি নদী তীরের মানুষও ফেলছেন সমানতালে। তাই জেলেসহ সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে নদী তীরের এসব বর্জ্য কুড়িয়ে আগুণে ধ্বংসের দৃশ্য ধারণ করে আপলোড় করেছেন তিনি।


সাধারণভাবে প্লাস্টিক পচনশীল বস্তু নয়। তাই এসব প্লাস্টিক বর্জ্য দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতিকর প্রভাব সৃষ্টি করে পরিবেশে । আর মানুষের অসচেতনতাই এই প্লাস্টিক দূষণের প্রধান কারণ।

এ দূষণে মারাত্মক ক্ষতিতে পড়ছে উদ্ভিদকূল, জলজ প্রাণী, দ্বীপ অঞ্চলের প্রাণীকূল।

প্লাস্টিক বর্জ্য নদীতে বসবাসকারী বিভিন্ন প্রাণীর বাসস্থান, খাদ্য সংগ্রহের স্থান ও উদ্ভিদের খাদ্য গ্রহণের পথে বাধার সৃষ্টি করে।

শুধুমাত্র উদ্ভিদ বা জলজ প্রাণী নয়, মানুষ প্লাস্টিক দূষণের কারণে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন পরিবেশবিদরা ।