ঢাকা ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

ফুল চাষে স্বাবলম্বী কাছারপুরের রাসেল

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ১০:৪৬:৩৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • / 96

পাবনা সদর উপজেলার আতাইকুলা ইউনিয়নের কাছারপুর গ্রামে রাসেলের ফুলচাষ

ফজলুল হক,পাবনাঃ ফুল চাষ করে স্বাবলম্বী হয়েছেন রাসেল। চলতি মৌসুমে পাবনা সদর উপজেলার আতাইকুলা ইউনিয়নের কাছারপুর গ্রামে দের বিঘা বিঘা জমিতে গেন্দা ফুল চাষ করেছেন রাসেল। অল্প কিছু দিনেই প্রায় লাখ টাকার ফুল বিক্রি করেছেন। রাসেল আশা করছেন এই ফুল চাষ করেই তিনি তার জীবনের সফলতা আনবে।

রাসেলের বাবা আব্দুস ছাত্তার বলেন, আমার ছেলে লেখাপড়ার পাশাপাশি চাকুরীর চিন্তা না করে ফুল চাষের উদ্যোগ নিয়ে নিজে সফল হয়েছেন। প্রথম আমি সহ অনেকে রাসেলকে বলেছিলাম এ গুলো তোমার পক্ষে সম্ভব না । রাসেল তুমি অন্য তিছু কর। কিন্তু আজ আমার ছেলে ফুল চাষ করে সফল হয়েছেন।

এ বিষয়ে রাসেল বলেন, আমরা কৃষক পরিবারের ছেলে সরকারী চাকুরির চিন্তা না করে আমি ফুল চাষের উদ্যেগ নিয়েছি। কৃষকেরা যদি ধান, গম, পাট ও শাক সবজির পাশাপাশি ফুল চাষ করে তাহলে লাভবান হবে।

চলতি মৌসুমে অনন্য ফসল কমিয়ে দিয়ে তিনি ২/৩ বিঘা জমিতে ফুল চাষ করার কথা ভাবছেন।

রাসেল আরো বলেন, আমাকে পাবনার কৃষি কর্মকতারা ফুল চাষে পরামর্শ ও কারিগরি সহযোগিতা করলে আমি ভাল ভাবে ফুল চাষ করতে পারতাম। এ অঞ্চলের মাটি ফুল চাষের জন্য অত্যন্ত উপযোগি।

তিনি আরও জানান, ফুলের মান ভালো হওয়ায় জমি থেকেই প্রতিদিন ফুল ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছে ব্যবসায়ীরা। জমিতে লাল সাদা ও হলুদ রঙ্গের সমারোহ ঘটায় প্রতিদিন দর্শনর্থীরা ফুলের জমিতে ভীড় জমাচ্ছে।

রাসেল আতাইকুলা ইউনিয়নের আব্দুস ছাত্তারের ছেলে। রাসেল পাবনা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের কাছে সহযোগিতা কামনা করছেন।

ফুল চাষে স্বাবলম্বী কাছারপুরের রাসেল

প্রকাশিত সময় ১০:৪৬:৩৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২০

ফজলুল হক,পাবনাঃ ফুল চাষ করে স্বাবলম্বী হয়েছেন রাসেল। চলতি মৌসুমে পাবনা সদর উপজেলার আতাইকুলা ইউনিয়নের কাছারপুর গ্রামে দের বিঘা বিঘা জমিতে গেন্দা ফুল চাষ করেছেন রাসেল। অল্প কিছু দিনেই প্রায় লাখ টাকার ফুল বিক্রি করেছেন। রাসেল আশা করছেন এই ফুল চাষ করেই তিনি তার জীবনের সফলতা আনবে।

রাসেলের বাবা আব্দুস ছাত্তার বলেন, আমার ছেলে লেখাপড়ার পাশাপাশি চাকুরীর চিন্তা না করে ফুল চাষের উদ্যোগ নিয়ে নিজে সফল হয়েছেন। প্রথম আমি সহ অনেকে রাসেলকে বলেছিলাম এ গুলো তোমার পক্ষে সম্ভব না । রাসেল তুমি অন্য তিছু কর। কিন্তু আজ আমার ছেলে ফুল চাষ করে সফল হয়েছেন।

এ বিষয়ে রাসেল বলেন, আমরা কৃষক পরিবারের ছেলে সরকারী চাকুরির চিন্তা না করে আমি ফুল চাষের উদ্যেগ নিয়েছি। কৃষকেরা যদি ধান, গম, পাট ও শাক সবজির পাশাপাশি ফুল চাষ করে তাহলে লাভবান হবে।

চলতি মৌসুমে অনন্য ফসল কমিয়ে দিয়ে তিনি ২/৩ বিঘা জমিতে ফুল চাষ করার কথা ভাবছেন।

রাসেল আরো বলেন, আমাকে পাবনার কৃষি কর্মকতারা ফুল চাষে পরামর্শ ও কারিগরি সহযোগিতা করলে আমি ভাল ভাবে ফুল চাষ করতে পারতাম। এ অঞ্চলের মাটি ফুল চাষের জন্য অত্যন্ত উপযোগি।

তিনি আরও জানান, ফুলের মান ভালো হওয়ায় জমি থেকেই প্রতিদিন ফুল ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছে ব্যবসায়ীরা। জমিতে লাল সাদা ও হলুদ রঙ্গের সমারোহ ঘটায় প্রতিদিন দর্শনর্থীরা ফুলের জমিতে ভীড় জমাচ্ছে।

রাসেল আতাইকুলা ইউনিয়নের আব্দুস ছাত্তারের ছেলে। রাসেল পাবনা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের কাছে সহযোগিতা কামনা করছেন।