ঢাকা ০১:৫১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

বগুড়া জেলার গাবতলী ও সোনাতলা উপজেলার কিছু কিছু এলাকায় ব্যাপক শিলাবৃষ্টি

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ১০:১৬:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • / 11

মহিউদ্দিন নিশাত, বগুড়াঃ ২৬শে ফেব্রুয়ারি বুধবার বিকাল পাঁচটায় হঠাৎ করেই বগুড়া জেলার গাবতলী ও সোনাতলা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক শিলা বৃষ্টি হতে দেখা যায়।

এতে কোনো বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি না হলেও প্রভাব পড়তে পারে ফসলি জমিতে।

স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানতে পারা যায় তারা আগে কখনো এত বেশি শিলা বৃষ্টি দেখেনি। পূর্বে সংঘটিত শিলাবৃষ্টিতে শীল/বরফ এর পরিমান অনেক কম ছিল। তবে আজকের শিলাবৃষ্টিতে তারা খুবই শংকিত হয়ে পড়ে। এ বিষয়ে তারা মূলত পরিবেশ দূষণ আবহাওয়া কে দায়ী করছে।

গাবতলী ও সোনাতলা উপজেলার কিছু কিছু এলাকায় এ ধরনের বৃষ্টি হলেও আশেপাশে এলাকাতে তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি। বেশ কিছুক্ষণ ধরে চলতে থাকা এরকম বৃষ্টিতে আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে রাস্তাঘাট সহ সকল কিছু। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই বরফ গলে পানিতে পরিণত হয়। এর ফলে তেমন কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

গত দুইদিন থেকে হালকা বৃষ্টি সহ আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ছিল। তার মধ্যেই এরকম বৃষ্টিতে ওইসব এলাকায় ঠান্ডার পরিমাণ বেড়ে যায় এবং লোকজন কিছুটা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

বগুড়া জেলার গাবতলী ও সোনাতলা উপজেলার কিছু কিছু এলাকায় ব্যাপক শিলাবৃষ্টি

প্রকাশিত সময় ১০:১৬:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০

মহিউদ্দিন নিশাত, বগুড়াঃ ২৬শে ফেব্রুয়ারি বুধবার বিকাল পাঁচটায় হঠাৎ করেই বগুড়া জেলার গাবতলী ও সোনাতলা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক শিলা বৃষ্টি হতে দেখা যায়।

এতে কোনো বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি না হলেও প্রভাব পড়তে পারে ফসলি জমিতে।

স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানতে পারা যায় তারা আগে কখনো এত বেশি শিলা বৃষ্টি দেখেনি। পূর্বে সংঘটিত শিলাবৃষ্টিতে শীল/বরফ এর পরিমান অনেক কম ছিল। তবে আজকের শিলাবৃষ্টিতে তারা খুবই শংকিত হয়ে পড়ে। এ বিষয়ে তারা মূলত পরিবেশ দূষণ আবহাওয়া কে দায়ী করছে।

গাবতলী ও সোনাতলা উপজেলার কিছু কিছু এলাকায় এ ধরনের বৃষ্টি হলেও আশেপাশে এলাকাতে তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি। বেশ কিছুক্ষণ ধরে চলতে থাকা এরকম বৃষ্টিতে আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে রাস্তাঘাট সহ সকল কিছু। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই বরফ গলে পানিতে পরিণত হয়। এর ফলে তেমন কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

গত দুইদিন থেকে হালকা বৃষ্টি সহ আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ছিল। তার মধ্যেই এরকম বৃষ্টিতে ওইসব এলাকায় ঠান্ডার পরিমাণ বেড়ে যায় এবং লোকজন কিছুটা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।