বাল্য বিবাহঃ ঈশ্বরদীতে কাজী ও ছেলের বাবা জেল হাজতে

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ পাবনা জেলার ঈশ্বরদীতে ছেলেকে বাল্য বিয়ে দেওয়ায় ঈশ্বরদীতে কাজী ও ছেলের বাবাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার ২৭ মার্চ রাতে ঈশ্বরদীর উপজেলার মুলাডুলি ইউনিয়নে।

এঘটনায় মুলাডুলি ইউনিয়নের কাজী সিদ্দিকুর রহমান এবং ছেলের বাবা ইস্রাইল হোসেন খাঁ’র বিরুদ্ধে ঈশ্বরদী থানায় ঐ রাতে একটি মামলা দায়ের হয়। আটককৃতদের শনিবার ২৮ মার্চ সকালে পাবনা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) অরবিন্দ সরকার ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন।

ঈশ্বরদী থানা সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার ২৭ মার্চ বিকেলে মুলাডুলি ইউনিয়নের খাঁ পাড়া গ্রামে কাজীর বাড়িতে বাল্য বিয়ে দেয়া হচ্ছে এমন সংবাদ ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে তদন্তে যায়। এসময় পুলিশ জানতে পারে, ঐ কাজী গত ২৪ মার্চ মুলাডুলি ইউনিয়নের গোয়ালবাথান গ্রামের ইস্রাইল হোসেন খাঁ’র ১৮ বছরের ছেলে সাজেদুলের সাথে সাঁথিয়া থানার মোবারক হোসেনের মেয়ে ইভা খাতুনের বিয়ে দেয়। গতকাল কাজীর বাড়ি হতে বিয়ে তুলে দেওয়ার আয়োজন করা হয়েছিল। এঘটনায় পুলিশের এস আই হাসান আইন বর্হিভূত বিয়ে দেওয়ার অভিযোগে উক্ত কাজীকে ও ছেলের বাবাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

পুলিশ জানায়, আইনগতভাবে ছেলের বিয়ের বয়স না হলেও মেয়ের বিয়ের বয়স হয়েছিল। তাই মেয়ের বাবাকে আটক করা হয়নি।

রাতে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব রায়হানকে বিষয়টি জানানো হলে তিনি বিধি মোতাবেক মামলা দায়ের করে তাদের জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ প্রদান করেন।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন