ঢাকা ০৯:৪৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

বেড়ায় অবৈধ নৌবন্দর উচ্ছেদ অভিযানের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৫:১৮:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯
  • / 10

বেড়া (পাবনা)প্রতিনিধিঃপাবনার বেড়ায় অবৈধ একটি নৌবন্দর উচ্ছেদ পরিচালনা করেছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ।

গত সোমবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর পর্যন্ত এ অভিযান চালিয়ে বন্দরটি উচ্ছেদ করা হয়।

নৌ পরিবহন মন্ত্রানালয়ের উপসচিব ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এস এম শাহ হাবিবুর রহমান হাকিমের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত এই অভিযান চালান।

এসময় বন্দর এলাকা থেকে ৯টি জাহাজ এবং ৯জনকে আটক করা হয়। তাদের প্রত্যেককে ৩০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। অভিযান চলাকালে বিআইডাব্উলিটি এর চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান , বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ আনাম সিদ্দিকীসহ আইন- শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুল সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

বেড়ায় নৌবন্দর (শালিখা পাড়া কোলঘাট ও রাজঘাটের) উচ্ছেদ অভিযানের প্রতিবাদে গত সোমবার (৯ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ব্যবসায়ী,ঘাট শ্রমিক,ঘাট ইজারাদার এবং রাজঘাটের প্রতিনিধি সমন্বয়ে একটি সংবাদ সন্মেলন করেন।

এরই জের ধরে গতকাল মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টায় বৃশালিখা ঘাট শ্রমিক ইউনিয়ন ও বৃশালিখা গ্রোথসেন্টার ব্যবসায়িক সমিতির নেতৃত্বে বৃশালিখা কোলঘাট থেকে হাজার হাজার শ্রমিক,ব্যবসায়ি একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বেড়া বাজার হয়ে উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ের সামনে শেষ করেন।

এসময় তাদের পক্ষে মোঃ আলতাব হোসেন, মোঃ নজরুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান হবি , শফিকুল ইসলাম ফরিদ, মোঃ আশরাফ আলীর নেতৃত্বে বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি স্বারকলিপি প্রদান করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহন করেন প্রশাসনিক কর্মকর্তা কে,এম.মাহবুব আলম।

পাবনা জেলাস্থ বেড়া পৌরসভার অর্ন্তগত শালিকা পাঠক (সালিকাপাড়া) মৌজায় বৃশালিখা কোলঘাট ও বেড়া পৌরসভার লাইসেন্স প্রাপ্ত বৃশালিখা বে-সরকারি রাজঘাট ও তৎসংলগ্ন বৈধ স্থাপনা সমুহের তথ্যাদি ও কঞ্জারভেন্সি চার্জ প্রদানের তথ্যাদি উপস্থাপন প্রসঙ্গে স্মারক লিপিতে উল্লেখ করা হয়।

স্মারক লিপিতে উল্লেখ রয়েছে এ ঘাটে বর্তমান প্রায় ৬ হাজার শ্রমিক কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

জীবিকা নির্বাহ ও ব্যবসা বানিজ্য পরিচালনার জন্য পৌরসভার ,সহকারী কমিশনারের (ভুমি),জেলা প্রশাসকের ও বিআইডবিøউটিএ এর প্রতিনিধির সমন্বয়ে সরেজমিনে সুষ্ঠ তদন্তের দাবী জানিয়ে প্রয়োজনীয় কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

স্মারকলিপি প্রদান অনুষ্ঠানে শ্রমিক ও ব্যবসায়ি নেতৃবৃন্দ সবাইকে ধৈর্য্য সহকারে ঘৃন্য এ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিল করার অপচেষ্টায় লিপ্ত স্বাধীনতা বিরোধীদের চক্রান্ত মোকাবেলা করার আহবান জানান।

দেশের সকল প্রশাসনিক ব্যবস্থা প্রতি গভীর আস্থা প্রকাশ করেন।
নেতৃবৃন্দ বলেন, উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন স্থানে দ্রæততম সময়ে,সহজ ও সুগম ভাবে পণ্য পৌছে দেওয়ার পথ হিসেবে এই বেড়া নৌবন্দর দীর্ঘকাল থেকে ব্যবহার হয়ে আসছে।

দ্রæত পণ্য খালাস ও পরিবহন ব্যবস্থা ও নৌ বন্দর থেকে প্রধান সড়কের দূরত্ব কম হওয়ায় আমদানি-রপ্তানির সাথে জড়িত ব্যবসায়ীরা এই নৌবন্দর কে প্রাধান্য দিয়ে থাকে।

এ বন্দর ব্যবহারের কৃষিতে কৃষকদের কাছে সবচাইতে সহজ উপায়ে ও কম সময়ে সার-বীজ পৌঁছে দেওয়া যায়। বক্ত্যবে তারা বলেন, এ ধরনের উচ্ছেদ অভিযান এক দুরভিসন্ধির প্রকাশ।

বৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানের অন্তরালে অবৈধ নীল নকশা আছে বলেই বৃশালিখা ঘাট শ্রমিক ইউনিয়ন ও বৃশালিখা গ্রোথসেন্টার ব্যবসায়িকরা মনে করেন।

বেড়ায় অবৈধ নৌবন্দর উচ্ছেদ অভিযানের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত সময় ০৫:১৮:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

বেড়া (পাবনা)প্রতিনিধিঃপাবনার বেড়ায় অবৈধ একটি নৌবন্দর উচ্ছেদ পরিচালনা করেছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ।

গত সোমবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর পর্যন্ত এ অভিযান চালিয়ে বন্দরটি উচ্ছেদ করা হয়।

নৌ পরিবহন মন্ত্রানালয়ের উপসচিব ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এস এম শাহ হাবিবুর রহমান হাকিমের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত এই অভিযান চালান।

এসময় বন্দর এলাকা থেকে ৯টি জাহাজ এবং ৯জনকে আটক করা হয়। তাদের প্রত্যেককে ৩০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। অভিযান চলাকালে বিআইডাব্উলিটি এর চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান , বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ আনাম সিদ্দিকীসহ আইন- শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুল সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

বেড়ায় নৌবন্দর (শালিখা পাড়া কোলঘাট ও রাজঘাটের) উচ্ছেদ অভিযানের প্রতিবাদে গত সোমবার (৯ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ব্যবসায়ী,ঘাট শ্রমিক,ঘাট ইজারাদার এবং রাজঘাটের প্রতিনিধি সমন্বয়ে একটি সংবাদ সন্মেলন করেন।

এরই জের ধরে গতকাল মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টায় বৃশালিখা ঘাট শ্রমিক ইউনিয়ন ও বৃশালিখা গ্রোথসেন্টার ব্যবসায়িক সমিতির নেতৃত্বে বৃশালিখা কোলঘাট থেকে হাজার হাজার শ্রমিক,ব্যবসায়ি একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বেড়া বাজার হয়ে উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ের সামনে শেষ করেন।

এসময় তাদের পক্ষে মোঃ আলতাব হোসেন, মোঃ নজরুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান হবি , শফিকুল ইসলাম ফরিদ, মোঃ আশরাফ আলীর নেতৃত্বে বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি স্বারকলিপি প্রদান করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহন করেন প্রশাসনিক কর্মকর্তা কে,এম.মাহবুব আলম।

পাবনা জেলাস্থ বেড়া পৌরসভার অর্ন্তগত শালিকা পাঠক (সালিকাপাড়া) মৌজায় বৃশালিখা কোলঘাট ও বেড়া পৌরসভার লাইসেন্স প্রাপ্ত বৃশালিখা বে-সরকারি রাজঘাট ও তৎসংলগ্ন বৈধ স্থাপনা সমুহের তথ্যাদি ও কঞ্জারভেন্সি চার্জ প্রদানের তথ্যাদি উপস্থাপন প্রসঙ্গে স্মারক লিপিতে উল্লেখ করা হয়।

স্মারক লিপিতে উল্লেখ রয়েছে এ ঘাটে বর্তমান প্রায় ৬ হাজার শ্রমিক কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

জীবিকা নির্বাহ ও ব্যবসা বানিজ্য পরিচালনার জন্য পৌরসভার ,সহকারী কমিশনারের (ভুমি),জেলা প্রশাসকের ও বিআইডবিøউটিএ এর প্রতিনিধির সমন্বয়ে সরেজমিনে সুষ্ঠ তদন্তের দাবী জানিয়ে প্রয়োজনীয় কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

স্মারকলিপি প্রদান অনুষ্ঠানে শ্রমিক ও ব্যবসায়ি নেতৃবৃন্দ সবাইকে ধৈর্য্য সহকারে ঘৃন্য এ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিল করার অপচেষ্টায় লিপ্ত স্বাধীনতা বিরোধীদের চক্রান্ত মোকাবেলা করার আহবান জানান।

দেশের সকল প্রশাসনিক ব্যবস্থা প্রতি গভীর আস্থা প্রকাশ করেন।
নেতৃবৃন্দ বলেন, উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন স্থানে দ্রæততম সময়ে,সহজ ও সুগম ভাবে পণ্য পৌছে দেওয়ার পথ হিসেবে এই বেড়া নৌবন্দর দীর্ঘকাল থেকে ব্যবহার হয়ে আসছে।

দ্রæত পণ্য খালাস ও পরিবহন ব্যবস্থা ও নৌ বন্দর থেকে প্রধান সড়কের দূরত্ব কম হওয়ায় আমদানি-রপ্তানির সাথে জড়িত ব্যবসায়ীরা এই নৌবন্দর কে প্রাধান্য দিয়ে থাকে।

এ বন্দর ব্যবহারের কৃষিতে কৃষকদের কাছে সবচাইতে সহজ উপায়ে ও কম সময়ে সার-বীজ পৌঁছে দেওয়া যায়। বক্ত্যবে তারা বলেন, এ ধরনের উচ্ছেদ অভিযান এক দুরভিসন্ধির প্রকাশ।

বৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানের অন্তরালে অবৈধ নীল নকশা আছে বলেই বৃশালিখা ঘাট শ্রমিক ইউনিয়ন ও বৃশালিখা গ্রোথসেন্টার ব্যবসায়িকরা মনে করেন।