ভাঙ্গুড়ায় ফার্মেসীতে সরকারী ঔষধ ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধিঃ পাবনার ভাঙ্গুড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৩টি ফার্মেসীতে ৯হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান।

এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর পাবনার সহকারী পরিচালক কে, এম মুহসীনিন মাহবুব। বুধবার দুপুরে এই আদালত পরিচালিত হয়।

এ সময় তারা উপজেলার ভাঙ্গুড়া বাজারে মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ রাখায় আফজাল হোসেনের মালিকানাধিন “মেসার্স ঔষধ ঘর” এ দুই হাজার, মজিবর রহমানের মালিকানাধিন “মোহনা ফার্মেসী” তে পাঁচ হাজার ও সাইদুল ইসলামের মালিকানাধিন “নাবিল ফার্মেসী”তে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেন। এছাড়া সিয়াম ভেটেনারী নামক ফার্মেসীর ফ্রিজারে প্রানীসম্পদ অধিদপ্তরের চারটি ভ্যাকসিন পাওয়া গেলে দোকানমালিককে এই ভ্যাকসিন দোকানে থাকার কারন জানতে চেয়ে সময় দিয়ে যান।

সিয়াম ভ্যটেরীনারির মালিক রবিউল ইসলাম জানান, ভ্যাকসিন গুলো একজন খামারী দোকানে রেখে গেছেন। মূলত তার বাড়িতে রেফ্রিজারেরটর না থাকায় আমার এখানে রেখে গেছেন। এই বিষয়ে আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত দিয়েছি।

ভাঙ্গুড়া প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, প্রাণীসম্পদ অধিদপ্তরের ভ্যাকসিন দোকানের বিক্রির কোন নিয়ম নেই। দোকানে তা সেটা অবৈধ।

ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান বলেন, সরকারী ভ্যাকসিনের বিষয়টি দোকান মালিক আমাকে লিখিত ভাবে জানিয়েছেন সেগুলো একজন খামারী তার ফ্রিজারের রেখে গেছেন। অধিকতর তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এই ধরনের অভিযান নিয়মিত পরিচালিত হবে। সে সাথে এই বিষয়ে সাধারন জনগণ ও দোকান মালিকদের সচেতন করা হবে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন