ঢাকা ০১:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

ভাঙ্গুড়ায় মেয়রের হস্তক্ষেপে বন্ধ হল মাদকের আড্ডা

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৪:৫২:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ নভেম্বর ২০১৯
  • / 13

চলনবিলাঞ্চল প্রতিনিধি : ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেলের হস্তক্ষেপে বন্ধ হয়েছে ভাঙ্গুড়ার বিভিন্ন জায়গার মাদক সেবীদের আড্ডা।

উল্লেখ্য গত একুশ অক্টোবর “রাতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যাদের দখলে” শিরোনামে একটি নিউজ বিভিন্ন জাতীয় ও অনলাইনে প্রকাশিত হওয়ায় মেয়র মহোদয় এবং ভাঙ্গুড়া থানার পুলিশ চিহ্নিত এলাকাগুলোর নজরদারী বৃদ্ধি করে।

ফলে  মাদকসেবীদের ঔ সকল এলাকায়  আড্ডা বন্ধ হয়ে যায়। মেয়র ও পুলিশ প্রসাশনের এমন কাজের আনন্দিত এলাকাবাসী।

বর্তমান মেয়র ক্ষমতায় আসার আগে ভাঙ্গুড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকা মাদকের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছিল।

২০১৬ সালে মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল ক্ষমতায় এসে শক্ত হাতে মাদকের বিরুদ্ধে লাড়াই করে মাদকের আস্থানা গুড়িয়ে দেন। গত কয়েক বছরে একাধিক শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে তিনি আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন বলেও জানা যায়।

এরপরেও সকলের অজান্তে কিছু এলাকায় গোপনে মাদকসেবীদের আড্ডা ছিল। বিষয়টি মেয়রের নজরে আসলে অভিযান চালালে মাদকসেবীদের সেসব আড্ডার স্থান পন্ড হয়ে যায়।

ভাঙ্গুড়া সরকারি হাজী জামাল উদ্দিন ডিগ্রি অনার্স কলেজ হোস্টেলের শিক্ষার্থী হারুন অর রশিদ জানান, সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় এখন আর মাদকসেবীরা এখানে আসে না। আমরা হোস্টেলের শিক্ষার্থীরা এখন দুশ্চিন্তিতা মুক্ত।

এই বিষয়ে পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল বলেন, মাদকের ক্ষেত্রে কোনো প্রকার ছাড় দেয়া হবে না। ভাঙ্গুড়ায় বর্তমানে মাদকের ভয়াবহতা অনেকটাই কমে গেছে। তবে অভিযান চলমান রেখে ভাঙ্গুড়া পৌরসভাকে একটি বাসযোগ্য নগর করতে যে কোনো মূল্যে মাদক সম্পূর্ণ নির্মূল করা হবে।

ভাঙ্গুড়ায় মেয়রের হস্তক্ষেপে বন্ধ হল মাদকের আড্ডা

প্রকাশিত সময় ০৪:৫২:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ নভেম্বর ২০১৯

চলনবিলাঞ্চল প্রতিনিধি : ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেলের হস্তক্ষেপে বন্ধ হয়েছে ভাঙ্গুড়ার বিভিন্ন জায়গার মাদক সেবীদের আড্ডা।

উল্লেখ্য গত একুশ অক্টোবর “রাতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যাদের দখলে” শিরোনামে একটি নিউজ বিভিন্ন জাতীয় ও অনলাইনে প্রকাশিত হওয়ায় মেয়র মহোদয় এবং ভাঙ্গুড়া থানার পুলিশ চিহ্নিত এলাকাগুলোর নজরদারী বৃদ্ধি করে।

ফলে  মাদকসেবীদের ঔ সকল এলাকায়  আড্ডা বন্ধ হয়ে যায়। মেয়র ও পুলিশ প্রসাশনের এমন কাজের আনন্দিত এলাকাবাসী।

বর্তমান মেয়র ক্ষমতায় আসার আগে ভাঙ্গুড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকা মাদকের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছিল।

২০১৬ সালে মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল ক্ষমতায় এসে শক্ত হাতে মাদকের বিরুদ্ধে লাড়াই করে মাদকের আস্থানা গুড়িয়ে দেন। গত কয়েক বছরে একাধিক শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে তিনি আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন বলেও জানা যায়।

এরপরেও সকলের অজান্তে কিছু এলাকায় গোপনে মাদকসেবীদের আড্ডা ছিল। বিষয়টি মেয়রের নজরে আসলে অভিযান চালালে মাদকসেবীদের সেসব আড্ডার স্থান পন্ড হয়ে যায়।

ভাঙ্গুড়া সরকারি হাজী জামাল উদ্দিন ডিগ্রি অনার্স কলেজ হোস্টেলের শিক্ষার্থী হারুন অর রশিদ জানান, সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় এখন আর মাদকসেবীরা এখানে আসে না। আমরা হোস্টেলের শিক্ষার্থীরা এখন দুশ্চিন্তিতা মুক্ত।

এই বিষয়ে পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল বলেন, মাদকের ক্ষেত্রে কোনো প্রকার ছাড় দেয়া হবে না। ভাঙ্গুড়ায় বর্তমানে মাদকের ভয়াবহতা অনেকটাই কমে গেছে। তবে অভিযান চলমান রেখে ভাঙ্গুড়া পৌরসভাকে একটি বাসযোগ্য নগর করতে যে কোনো মূল্যে মাদক সম্পূর্ণ নির্মূল করা হবে।