ঢাকা ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

ভাঙ্গুড়ায় হাসপাতালের বিছানার চাদর শুকানো হয় জঙ্গলে

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৮:২১:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর ২০১৯
  • / 12

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি: নানা অনিয়মের বেড়াজালে আবদ্ধ ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। ডাক্তার সংকট, সেবা গ্রহনে বিরম্বনা, ডায়াগনস্টিক কর্মীদের হয়রানী নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা।

সব কিছু ছাড়িয়ে গেছে হাসপাতালের ব্যবহৃত বিছানার চাদর পরিষ্কারের বিষয়টি। হাসপাতালের এই চাদর পরিষ্কারের ঠিকাদার সাবেক পৌর কমশিনার বাচ্চু মিয়া। কিন্তু অপিচ্ছন্ন ভাবে এই চাদর শুকানো হচ্ছে।

সরজমিনে গিয়ে দেখায়ায়, সড়কের পাশে বাঁশের খুঁটি, টিনের ঘরের চাল, রোদে শুকাতে দেয়া কাঠের খড়ির উপর মেলে দেয়া হয়েছে হাসপাতালের বিছানার চাদর।

স্থান সংকুলান না হওয়ায় সড়কের পাশের বেড়ে ওঠা আগাছা গুল্মের উপর ছড়িয়ে দেয়া রয়েছে এই চাদর। সড়কে যান চলাচলের কারনে সড়কের ধুলাবালি সরাসরি গিয়ে পড়ছে এই চাদরের উপর।

এছাড়া নোংরা আগাছার উপরে থাকায় এতে ঝুঁকি বাড়ছে রোগ সংক্রমনের। এই চাদর ধোয়ার দ্বায়িত্বে থাকা গোলেনুর খাতুন বলেন, চাদর শুকানোর জায়গা কম থাকায় আমি এই জঙ্গলের উপর চাদর শুকাতে দিয়েছি।

এই বিষয়ে ঠিকাদার বাচ্চু মিয়া জানান, আমি এর আগেও চাদর ধোয়ার দ্বায়িত্বে থাকা মাহিলাকে এভাবে চাদর শুকাতে নিষেধ করেছি। এই ঘটনা যদি সত্য হয় তবে তাকে এই কাজ থেকে সরিয়ে দেব।

এই বিষয়ে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার রুবেল আহমেদ বলেন, নোংরা পরিবেশে হাসপাতালের বিছানার চাদর শুকানো অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

এতে রোগ সংক্রমন হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। এই ভাবে শুকানো চাদরে সুস্থ ব্যক্তি ঘুমানোও ঝুঁকিপূর্ণ।

ভাঙ্গুড়ায় হাসপাতালের বিছানার চাদর শুকানো হয় জঙ্গলে

প্রকাশিত সময় ০৮:২১:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর ২০১৯

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি: নানা অনিয়মের বেড়াজালে আবদ্ধ ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। ডাক্তার সংকট, সেবা গ্রহনে বিরম্বনা, ডায়াগনস্টিক কর্মীদের হয়রানী নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা।

সব কিছু ছাড়িয়ে গেছে হাসপাতালের ব্যবহৃত বিছানার চাদর পরিষ্কারের বিষয়টি। হাসপাতালের এই চাদর পরিষ্কারের ঠিকাদার সাবেক পৌর কমশিনার বাচ্চু মিয়া। কিন্তু অপিচ্ছন্ন ভাবে এই চাদর শুকানো হচ্ছে।

সরজমিনে গিয়ে দেখায়ায়, সড়কের পাশে বাঁশের খুঁটি, টিনের ঘরের চাল, রোদে শুকাতে দেয়া কাঠের খড়ির উপর মেলে দেয়া হয়েছে হাসপাতালের বিছানার চাদর।

স্থান সংকুলান না হওয়ায় সড়কের পাশের বেড়ে ওঠা আগাছা গুল্মের উপর ছড়িয়ে দেয়া রয়েছে এই চাদর। সড়কে যান চলাচলের কারনে সড়কের ধুলাবালি সরাসরি গিয়ে পড়ছে এই চাদরের উপর।

এছাড়া নোংরা আগাছার উপরে থাকায় এতে ঝুঁকি বাড়ছে রোগ সংক্রমনের। এই চাদর ধোয়ার দ্বায়িত্বে থাকা গোলেনুর খাতুন বলেন, চাদর শুকানোর জায়গা কম থাকায় আমি এই জঙ্গলের উপর চাদর শুকাতে দিয়েছি।

এই বিষয়ে ঠিকাদার বাচ্চু মিয়া জানান, আমি এর আগেও চাদর ধোয়ার দ্বায়িত্বে থাকা মাহিলাকে এভাবে চাদর শুকাতে নিষেধ করেছি। এই ঘটনা যদি সত্য হয় তবে তাকে এই কাজ থেকে সরিয়ে দেব।

এই বিষয়ে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার রুবেল আহমেদ বলেন, নোংরা পরিবেশে হাসপাতালের বিছানার চাদর শুকানো অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

এতে রোগ সংক্রমন হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। এই ভাবে শুকানো চাদরে সুস্থ ব্যক্তি ঘুমানোও ঝুঁকিপূর্ণ।