মাটিরাঙ্গা উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারের অবহেলায় রোগীর মৃত্যু

মাটিরাঙ্গা (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধিঃ রবিবার ১৫ই মার্চ রাত প্রায় সারে সাতটার সময় খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারের অবহেলায় মোঃ রশিদ মিয়া(৬৫) নামের এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

জানা যায়, ১৫ই মার্চ রাত ৭:০৫ সময় মাটিরাঙ্গা পৌর ৯নং ওয়ার্ড মুসলিম পাড়াস্থ মোঃ রশিদ মিয়া (৬৫)কে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসে তার স্বজনরা এসে দেখে জরুরি বিভাগে কোনো ডাক্তার নেই একজন এসিস্ট্যান্ট বসে আছে। রোগীর স্বজনরা এসিস্ট্যান্টকে বলে ডাক্তারকে কল দেওয়ার জন্য এবং খুব শীগ্রই আসার জন্য এসিস্ট্যান্ট, ডাক্তারকে একে একে তিন বার করে কিন্তু কোনো সারা পায়নি পরে ডাক্তারের রুমে গিয়ে বলে আসেন প্রায় ১০-১৫ মিনিট পরে ডাঃ সন্জিতা ধর জরুরী বিভাগে আসেন এবং কোন ট্রিটমেন্ট ছাড়াই রোগী মোঃ রশিদ মিয়া (৬৫)কে ভর্তি দেন।

ভর্তির প্রায় ১০ মিনিট পরে ডাঃ সন্জিতা ধর রোগীর কেবিনে যান এবং কিছুক্ষণ পরে মৃত্যু ঘোষণা করেন। এতে রোগীর স্বজনরা ক্ষুব্ধ হয়ে হাসপাতালে জরো হচ্ছে,এবং একে একে হাসপাতালের আশপাশের সাধারণ মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে এক সময় পুরো হাসপাতাল জুড়ে ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ ঘিরে ফেলে। এক পর্যায় পুলিশ এসে ঘটনাস্থল নিয়ন্ত্রণে আনে এবং ঘটনার শুষ্ট তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান।

এবিষয়ে মাটিরাঙ্গা উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্স এর সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ খায়রুল আহম্মেদ বলেন ডাঃ সন্জিতা ধর এর ডিউটি আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে অভিযোগ ও তদন্তের মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান।

এই ঘটনার শুষ্ট বিচার চেয়ে আজ ১৬ই মার্চ মাটিরাঙ্গা উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে বাদী হয়ে অভিযোগ করেছেন মৃত মোঃ রশিদ মিয়ার ভাই মোঃ খোরশেদ আলম।
বাদী মোঃ খোরশেদ আলম জানান ডাঃ সন্জিতা ধর এর সুষ্ঠ বিচারের জন্য আমরা এই অভিযোগ করছি এবং ডাঃ সন্জিতা ধর এর অপসারণ চাই এই জন্য আমরা থানায় মামলা না করে উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রশাসন বিভাগের কাছে অভিযোগ করেছি।

এ বেপারে মাটিরাঙ্গা উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ খায়রুল আহম্মেদ বলেন আমরা তদন্ত শুরু করেছি খুব শীগ্রই এর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন