লক ডাউনের সম্ভাবনায় ঈশ্বরদী বাজারে বস্তা বস্তা চাল বিক্রি

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ লক ডাউনের সম্ভাবনায় ঈশ্বরদীতে বস্তা, বস্তা চাল বিক্রি হচ্ছে। সেই সাথে এই মোকামে পাইকারী ও খুচরা বাজারে চালের দাম আরেকদফা বেড়ে গেছে।

সোমবার রাতে উপজেলা প্রশাসন মাইকিং করে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় মঙ্গলবার হতে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ঈশ্বরদীর সকল মার্কেট, শপিং মল, বাণিজ্য কেন্দ্র, আবাসিক হোটেল, সাপ্তাহিক হাট, অরনখোলা ও আওতাপাড়ার পশু হাটসহ সকল হাট-বাজার বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়।

এই ঘোষণার পর সোমবার রাতে এবং মঙ্গলবার সকালে বাজারে চাল কেনার ধুম পড়ে যায়। যারা ১০-২০ কেজি করে চাল ক্রয় করতেন তাদেরও বস্তা বস্তা চাল কিনতে দেখা যায়।

এব্যাপারে লোকোসেড এলাকার নারী দিনমজুর নাছরিন বলেন, ৫ কেজি করে চাল কিনে খেতাম। শুনছি সব বন্ধ হয়ে যাবে। তাই ধার-দেনা করে ১ বস্তা চাল কিনে রাখলাম।

এদিকে ঈশ্বরদীর জয়নগর চালের পাইকারী মোকামে মঙ্গলবার খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ৪৮ টাকা কেজির মিনিকেট বেড়ে ৫২ টাকা, ৫৮ টাকার বাঁশমতি ৬০ টাকা, ৩৬ টাকার বিআর-২৮ চাল ৪০ টাকা এবং ৩৭ টাকার বোরো আউশ বেড়ে ৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

খুচরা বাজারেও দাম বৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে। মিনিকেট প্রতি কেজিক ৫৫ টাকা, বাঁশমতি ৬২ টাকা, বিআর-২৮ চাল ৪৩ টাকা এবং বোরো আউশ ৪২ দামে বিক্রি হচ্ছে। অন্যান্য চালের দামও এম দিনের ব্যবধানে কেজিতে ২ থেকে ৫ টাকা বেড়েছে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন