ঢাকা ০৩:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

শতবর্ষের পুরাতন জনবসতি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা পাকশীর বিস্তীর্ণ এলাকা হুকুম দখলের জন্য ১৫ দিনের উচ্ছেদ নোটিশ এলাকাবাসী দিশেহারা

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৭:৪৮:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ ডিসেম্বর ২০১৯
  • / 10

নিজস্ব প্রতিনিধি সোহান:পাকশীর কয়েকশত একর জমিতে বৈধ-অবৈধ বসবাসকারী বিপুল সংখ্যক মানুষকে তাদের বসত বাড়ি ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান থেকে উচ্ছেদের লক্ষ্যে ১৫ দিনের নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।

স্বল্প সময়ের নোটিশে এই উচ্ছেদের প্রতিবাদে গতকাল এলাকার সর্বদলীয় নেতাকর্মী জনপ্রতিনিধি বৃন্দ পাকশী রেলওয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করেন এবং এত দ্রুততম সময়ে দীর্ঘদিনের জনবসতি উচ্ছেদের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানান।

পাকশী রেলওয়ে ডিআরএম বলেন, সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কাজ চলছে। এক্ষেত্রে উচ্ছেদের সময় কিছুটা বর্ধিত করা যেতে পারে। তবে সে সময় কোন অবস্থাতেই এই ডিসেম্বর অতিক্রম করবে না।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এই এলাকায় একটি সেনা ছাউনি প্রতিষ্ঠা করা হবে। যেখানে ৬০০ সেনা সদস্যের একটি ব্রিগেড থাকবে।

এদিকে পাকশীর এই উচ্ছেদের খবর ছড়িয়ে পড়লে পাকশী এবং ঈশ্বরদী উপজেলার সর্বত্রই সাধারণ মানুষের আলাপ-আলোচনায় এক ধরণের বিষাদের সুর শুনতে পাওয়া যায়।

দীর্ঘদিনের এই অঞ্চলের মানুষের বসবাস, ব্যবসা-বাণিজ্যের পাশাপাশি বিনোদন কাজে ব্যবহৃত প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা সেই পাকশী আর থাকবে না। বাড়ির কাছে এত সুন্দর একটি ঐতিহাসিক স্পটের মৃত্যু ঘটতে যাচ্ছে এযেন এলাকাবাসী কোন মতেই মেনে নিতে পারছে না।

শতবর্ষের পুরাতন জনবসতি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা পাকশীর বিস্তীর্ণ এলাকা হুকুম দখলের জন্য ১৫ দিনের উচ্ছেদ নোটিশ এলাকাবাসী দিশেহারা

প্রকাশিত সময় ০৭:৪৮:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ ডিসেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিনিধি সোহান:পাকশীর কয়েকশত একর জমিতে বৈধ-অবৈধ বসবাসকারী বিপুল সংখ্যক মানুষকে তাদের বসত বাড়ি ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান থেকে উচ্ছেদের লক্ষ্যে ১৫ দিনের নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।

স্বল্প সময়ের নোটিশে এই উচ্ছেদের প্রতিবাদে গতকাল এলাকার সর্বদলীয় নেতাকর্মী জনপ্রতিনিধি বৃন্দ পাকশী রেলওয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করেন এবং এত দ্রুততম সময়ে দীর্ঘদিনের জনবসতি উচ্ছেদের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানান।

পাকশী রেলওয়ে ডিআরএম বলেন, সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কাজ চলছে। এক্ষেত্রে উচ্ছেদের সময় কিছুটা বর্ধিত করা যেতে পারে। তবে সে সময় কোন অবস্থাতেই এই ডিসেম্বর অতিক্রম করবে না।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এই এলাকায় একটি সেনা ছাউনি প্রতিষ্ঠা করা হবে। যেখানে ৬০০ সেনা সদস্যের একটি ব্রিগেড থাকবে।

এদিকে পাকশীর এই উচ্ছেদের খবর ছড়িয়ে পড়লে পাকশী এবং ঈশ্বরদী উপজেলার সর্বত্রই সাধারণ মানুষের আলাপ-আলোচনায় এক ধরণের বিষাদের সুর শুনতে পাওয়া যায়।

দীর্ঘদিনের এই অঞ্চলের মানুষের বসবাস, ব্যবসা-বাণিজ্যের পাশাপাশি বিনোদন কাজে ব্যবহৃত প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা সেই পাকশী আর থাকবে না। বাড়ির কাছে এত সুন্দর একটি ঐতিহাসিক স্পটের মৃত্যু ঘটতে যাচ্ছে এযেন এলাকাবাসী কোন মতেই মেনে নিতে পারছে না।