ঢাকা ০৫:২১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

সরিষার বাম্পার ফলন পাবনার বেড়ায়

বেড়া প্রতিনিধি:
  • প্রকাশিত সময় ০৫:০৫:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২২
  • / 56

বেড়া’র একটি সরিষা ক্ষেত। ছবি: স্বতঃকণ্ঠ


পাবনার বেড়া উপজেলার মাঠে সরিষা হলুদ ফুলে ছেয়ে গেছে দিগন্ত সাড়া মাঠে মাঠে জুড়ে সরিষা ফুলের অপরূপ দোলে কৃষকের চোখে মুখে ফুটে উঠেছে আনন্দের হাসি। স্বপ্ন দেখছে বাম্পার ফলনের।

কৃষি বিভাগের সহযোগিতা বন্যা না আসায় মাটির রস কম ছিল এবার নির্ধারিত সময়ের আগেই সরিষার চাষের উপযুক্ত হয়ে যায় এখানকার জমি। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বিপুল উদ্যোমে সরিষার চাষে ঝুঁকে পড়েছেন কৃষকরা।

ভালো ফলনের পাশাপাশি এ বছর সরিষার দাম ভালো পাওয়ায় আশা করেছেন উপজেলার কৃষকরা। বিভিন্ন সরিষার জমি ঘুরে দেখা যায় মাঠে যেন কেউ সবুজের গায়ে আলপনা দিয়ে রাঙিয়ে দিয়েছে। হলুদ ফুলে ভরে গেছে পুরো মাঠ – দিগন্ত জুড়ে শুধু হলুদের সমরাহ সরিষা ফুলে ফুলে মৌমাছির মধু আহরণে ব্যস্ত সরিষার ফুলের হলুদ রাজ্য, গুনগুণানীতে মুখর হয়ে উঠেছে গোটা মাঠ।।

উপজেলার চাকলা গ্রামের কৃষক মতিন বলেন, কয়েক বছর আগে উপজেলা কৃষি অফিসের পরামর্শ প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে সরিষা আবাদ শুরু করি । সরিষা চাষ করে বাড়িতে আয় করতে সক্ষম হয়েছি আমার দেখাদেখি অনেক কৃষক এখন তাদের জমিতে সরিষার আবাদ শুরু করেছে।

সানিলা গ্রামের সাত্তার বলেন, সরিষার চাষ করে নিজে তেলের চাহিদা পূরণ করে অতিরিক্ত সরিষা বাজারে বিক্রি করলে পরিবারের বাড়তি আয় হবে।

তিনি আরো বলেন, গত বছর বিভিন্ন ভোজ্য তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় সরিষার দাম ভালো পেয়েছিলাম।

উপজেলা কৃষি বিভাগ থেকে জানা যায় লক্ষ মাত্রার চেয়েও এ বছর সরিষা চাষ তুলনামুলকভাবে বেশী হয়েছে। গত বছর চাষ হয়েছিল ৩ হাজার হেক্টর, এ বছর সরিষা চাষ হয়েছে ৩ হাজার ৪৪৫ হেক্টর।

সরিষার বাম্পার ফলন পাবনার বেড়ায়

প্রকাশিত সময় ০৫:০৫:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২২

পাবনার বেড়া উপজেলার মাঠে সরিষা হলুদ ফুলে ছেয়ে গেছে দিগন্ত সাড়া মাঠে মাঠে জুড়ে সরিষা ফুলের অপরূপ দোলে কৃষকের চোখে মুখে ফুটে উঠেছে আনন্দের হাসি। স্বপ্ন দেখছে বাম্পার ফলনের।

কৃষি বিভাগের সহযোগিতা বন্যা না আসায় মাটির রস কম ছিল এবার নির্ধারিত সময়ের আগেই সরিষার চাষের উপযুক্ত হয়ে যায় এখানকার জমি। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বিপুল উদ্যোমে সরিষার চাষে ঝুঁকে পড়েছেন কৃষকরা।

ভালো ফলনের পাশাপাশি এ বছর সরিষার দাম ভালো পাওয়ায় আশা করেছেন উপজেলার কৃষকরা। বিভিন্ন সরিষার জমি ঘুরে দেখা যায় মাঠে যেন কেউ সবুজের গায়ে আলপনা দিয়ে রাঙিয়ে দিয়েছে। হলুদ ফুলে ভরে গেছে পুরো মাঠ – দিগন্ত জুড়ে শুধু হলুদের সমরাহ সরিষা ফুলে ফুলে মৌমাছির মধু আহরণে ব্যস্ত সরিষার ফুলের হলুদ রাজ্য, গুনগুণানীতে মুখর হয়ে উঠেছে গোটা মাঠ।।

উপজেলার চাকলা গ্রামের কৃষক মতিন বলেন, কয়েক বছর আগে উপজেলা কৃষি অফিসের পরামর্শ প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে সরিষা আবাদ শুরু করি । সরিষা চাষ করে বাড়িতে আয় করতে সক্ষম হয়েছি আমার দেখাদেখি অনেক কৃষক এখন তাদের জমিতে সরিষার আবাদ শুরু করেছে।

সানিলা গ্রামের সাত্তার বলেন, সরিষার চাষ করে নিজে তেলের চাহিদা পূরণ করে অতিরিক্ত সরিষা বাজারে বিক্রি করলে পরিবারের বাড়তি আয় হবে।

তিনি আরো বলেন, গত বছর বিভিন্ন ভোজ্য তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় সরিষার দাম ভালো পেয়েছিলাম।

উপজেলা কৃষি বিভাগ থেকে জানা যায় লক্ষ মাত্রার চেয়েও এ বছর সরিষা চাষ তুলনামুলকভাবে বেশী হয়েছে। গত বছর চাষ হয়েছিল ৩ হাজার হেক্টর, এ বছর সরিষা চাষ হয়েছে ৩ হাজার ৪৪৫ হেক্টর।