সাবেক এমপি রাজনীতিবিদ মাওলানা আবদুস সুবহানের ইন্তেকাল

কামরুল ইসলাম, পাবনাঃ জামায়াতের সাবেক নায়েবে আমীর ও পাবনা-৫ আসনের ৫ বারের সাবেক সংসদ সদস্য মাওলানা আবদুস সুবহান আর নেই (ইন্না…রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৪ বছর।

একাত্তরে কথিত মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে প্রাণদণ্ডে দণ্ডিত এ নেতা শুক্রবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

পাবনা জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি প্রিন্সিপাল ইকবাল হুসাইন জানান, মাওলানা আবদুস সুবহান ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে ছিলেন। দীর্ঘদিন কারাগারে থাকা অবস্থায় বাথরুমে পড়ে গিয়ে একটি হাত ভেঙে যায়। এবং অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। এখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি আমাদের ছেড়ে চিরবিদায় নিয়েছেন।

জানা গেছে, গত ২৪ জানুয়ারি আবদুস সুবহানকে কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ঢাকা মেডিকেলে আনা হয়। বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন তিনি। আজ দুপুর ১ টা ৩৩ মিনিটে না ফেরার দেশে চলে যান।

লাশ ঢাকা মেডিকেল মর্গে রয়েছে জানিয়ে ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনসপেক্টর বাচ্চু মিয়া জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ।

আবদুস সুবহান দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতি করায় সংগঠনে তিনি ছিলেন বয়োজ্যেষ্ঠ। তিনি দলীয় টিকিটে পাবনা-৫ আসন থেকে পাঁচবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। সবশেষ ২০০১ সালের নির্বাচনে চারদলীয় জোটের মনোনয়ন নিয়ে এমপি নির্বাচিত হন।

জামায়াতের নায়েবে আমির মাওলানা আবদুস সুবহান পাকিস্তান আমলে ছিলেন পাবনা জেলা জামায়াতের আমির ও কেন্দ্রীয় শুরা সদস্য। তিনি পাবনা আলিয়া মাদ্রাসার সাবেক হেড মাওলানা ছিলেন।তিনি ছিলেন আধুনিক পাবনা করার মূল কারিগর তার হাত ধরে পাবনা ক্যাডেট কলেজ পাবনা ইসলামিয়া কলেজ পাবনা ইসলামিয়া মাদ্রাসা ইমাম গাযযালী ইন্সটিটিউট দারুল আমান ট্রাস্ট ইছামতি নদী খনন বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের রূপকার ছিলেন।

২০১৫ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি জামায়াতের এই প্রভাবশালী নেতাকে যুদ্ধাপরাধের দায়ে প্রাণদণ্ড দেন মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

মাওলানা আব্দুস সুবহান হলেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নবম শীর্ষ নেতা, যিনি কথিত একাত্তরের যুদ্ধাপরাধের দায়ে দোষী সাব্যস্ত হন।

রায়ের দিন সুবহানকে নির্দোষ দাবি করে তার ছেলে নেছার আহমদ নান্নু দাবি করেন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে মিথ্যা মামলায় তাকে ফাঁসি দেয়া হয়েছে।

সাবেক এই বর্ষীয়ান নেতার মৃত্যুর খবর শুনে পাবনা জেলা জামায়াতের আমীর অধ্যাপক আবু তালেব মণ্ডল বলেন, আজ আমরা অভিভাবক হারালাম, যা কখনো পূরণ হবেনা। আব্দুস সুবহানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন পাবনা জেলা জামায়াতের সাবেক আমীর অধ্যাপক মাওলানা আব্দুর রহিম, সেক্রেটারি প্রিন্সিপাল ইকবাল হোসাইন পাবনা পৌর জামায়াতের আমীর অধ্যাপক আব্দুল গাফফার খান, পাবনা সদর জামায়াতের আমির আব্দুর রউফ, শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন পাবনা জেলা সভাপতি অধ্যাপক রেজাউল করিম।

মাওলানা আবদুস সুবহানের মৃত্যুর খবর শুনে গতকাল পাবনা জেলা বিএনপি নেতৃবৃন্দ তাৎক্ষণিক শোক জানান ।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, পাবনা জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবদুস সামাদ মন্টু, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার হাবিবুর রহমান তোতা জেলা বিএনপি’র সদস্যসচিব সিদ্দিকুর রহমান, সাবেক দপ্তর সম্পাদক জহুরুল ইসলাম।

উল্লেখ্য আজ শনিবার দুপুর ২ ঘটিকার সময় মাওলানা আব্দুস সুবহানের নিজ হাতে গড়া প্রতিষ্ঠান, পাবনা দারুল আমান ট্রাস্ট ময়দানে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন