সিরাজগঞ্জের তাড়াশে পারিবারিক দ্বন্দে জানালা ভেঙ্গে মালামাল লুট

তাড়াশ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের তাড়াশে পারিবারিক দ্বন্দে ঘরের জানালা ভেঙ্গে মালামালা লুট করা হয়েছে। উপজেলার বারুহাস ইউনিয়নের পালাসি গ্রামে আপন দুই বোনের পারিবারিক গোলমালে ছোট বোন বড় বোনের জানালা ভেঙ্গে ঘরের মধ্যে রাখা মালামাল লুট করায় রড় বোন থানায় অভিযোগ করেছে ।

ওই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী তাহেরা খাতুন একই গ্রামের খায়ের ফকিরের স্ত্রী মাহেলা খাতুনসহ আরো ২জনের নামে এ অভিযোগ করেন। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন গত ২০-১২-২১ইং তারিখ আনুমানিক রাত ৭ ঘটিকার সময় আমি বাড়িতে না থাকায়,

আমার বাড়িতে জোরপূর্বক ঘরের জানালা ভাঁঙচুর করে এবং আমার ঘরের মধ্য প্রবেশ করে আমার বাক্স থেকে নগদ ৫০,০০০/=(প াশ হাজার) টাকা, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, মোবাইল ফোন ও ৪ আনি স্বর্ণের গহণা নিয়ে চলে যায়।

এছাড়াও আমাকে প্রাণনাশের হুমকি-ধামকী দিয়েছে এবং মানসম্মান নষ্ট করার হুমকি-ধামকীও দিয়েছে। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় ওই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী তাহেরা খাতুন ও একই গ্রামের খায়ের ফকিরের স্ত্রী মাহেলা খাতুন আপন ২ বোন।

পারিবারিক গোলমালে বড় বোন তাহেরা খাতুনের স্বামীর ব্রেনের সমস্যা ও অবস্থা শোচনীয় হওয়ায় ছোট বোন মাহেলা খাতুন ও তার ছেলে মেয়েরা তাকে দীর্ঘদিন যাবত নানা ধরনরে নির্যাতন করে আসছে।

এ বিষয়ে তাহেরা খাতুন বলেন, বাড়ীতে আমি একা থাকায় এই নির্যাতন গুলো সইতে হয়। আমার স্বামীর সমস্যা থাকায় কিছু বলতে পারি না। কিন্তু আমি বাড়িতে না থাকায় জানালা ভেঙ্গে ঢুকে তারা আমার সহায় সম্পদ নিয়ে গেছে ।

আমার আর কিছুই থাকলো না। তাই আমি থানায় অভিযোগ দিয়েছি এর একটা সু ব্যবস্থা পাওয়ার জন্য। এই ব্যাপারে তাড়াশ থানা অফিসার ইনচার্জ ফজলে আশিক বলেন,অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে প্রেরণার উদ্যোগে ১০টি অনগ্রসর পরিবারের মাঝে সহায়তা প্রদান

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন