সুজানগরে অপহৃত ষষ্ঠশ্রেণীর ছাত্রীকে ৭ দিন পর উদ্ধার

ইউএনএসঃ ষষ্ঠশ্রেণীর ছাত্রীকে অপহরনের ৭ দিন পর পুলিশ উদ্ধার করে ফিরে দিলেন পরিবারের কাছে। এ ঘটনায় কাহাকেও আটক করতে পারে নাই পুলিশ।

জানা যায়, পাবনা সুজানগর উপজেলার নাজিরগঞ্জ ইউনিয়নের নারায়নপুর গ্রামের শাহাদত মন্ডলের মেয়ে কামালপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠশ্রেণীর ছাত্রী গত ১০ মার্চ স্কুল ছুটি শেষে বাড়ি না ফিরলে পরিবারের লোকজন তাকে খোঁজাখুঁজি শুরু করে দুপুর গড়িয়ে বিকাল, বিকাল গড়িয়ে রাত হলেও তার কোনো সন্ধান না পাওয়ায় সুজানগর থানায় সাধারণ ডাইরি করেন।

এর পরও তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায় নাই। গত ১৭ মার্চ দিবাগত রাত সাড় ১২ টার সময় কামালপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইন-চার্জ আবু তাহের ঐ ছাত্রীকে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেন।

ছাত্রীর পিতা শাহাদত জানান, ১৭ মার্চ রাত সাড়ে ১২ টার সময় কামালপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবু তাহের আমাকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে আমার মেয়েকে ফিরিয়ে দেন।

শাহাদত আরো জানান, আমার মেয়ে ১০ তারিখে স্কুল শেষে দুপুর ২ টার সময় বাড়ি ফেরার সময় প্রতিবেশী শাকু মন্ডলের ছেলে শফিকুল মন্ডল (২৬) একটি সাদা মাক্রোবাস নিয়ে তাকে বাড়িতে পৌঁছে দিবে বলে গাড়িতে উঠতে বলে, আমার মেয়ে রাজি না হওয়ায় তাকে জোরপূর্বক মাক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। এবং ১৭ তারিখে ফাঁড়ি পুলিশের মাধ্যমে বুঝে পায়।

শাহাদত বলেন, এ ঘটনায় সুজানগর থানায় মামলা করতে গেলে থানা মামলা না নিয়ে আদালতে মামলা করতে বলেন।

এ বিষয় কামালপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবু তহেরের সাথে মুঠো যোগাযোগ করলে বার্তাসংস্থা ইউএনএস’কে জানান, দুজনের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক থাকায় দুজন পালিয়ে ছিলো। ১৭ মার্চ রাতে মেয়েটি নাজিরগঞ্জ ঘাটের পাশ দিয়ে হেঁটে আসছিল দেখে তাকে উদ্ধার করে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিয়েছি।

সুজানগর থানার অফিসার ইনচার্জ বদরুদ্দোজার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, এ ঘটনায় কোনো লিখিত অভিযোগ পায়নি পেলে যথাযত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন