ঢাকা ০৯:২০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com

৩ মাসের নিষ্পাপ শিশু ও তার মাকে জ্বলসে দিল মাদকসেবী পাষন্ড বাবা

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০৩:১৯:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • / 17

চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রাম মহানগরীর ডবলমুরিং থানাস্থ গায়েবী মসজিদের পাশে এ ইতিহাস বিবর্তনী নির্মম ঘটনাটি ঘটে। মাদকসেবী পিতা তার তিন মাসের শিশুকে ও তার মাকে যৌতুকের দায়ে উত্তপ্ত গরম পানি দ্বারা শরীরের প্রায় অধিকাংশ অংশ ঝলসে দেয়।

গত ২৯ জানুয়ারী, আনুমানিক ১১.৩০ ঘটিকার চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ থানার পানওয়াল পাড়ার লুৎফুর নাহার পিংকি (২৮) ও তার তিন মাসের কন্যা শিশুকে তার স্বামী মিজানুর রহমান যৌতুকের জন্য এই এই ঘটনা ঘটায়।

ভুক্তভোগীর পিতা সৈয়দ মিয়ার থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালে তার মেয়েকে চট্টগ্রামের চন্দোনাইশ থানার বৈলতলী’র আনোয়ার হোসেনের ছেলে মিজানুর রহমান এর সাথে ৭ লক্ষ টাকা মহোরনা পূর্বক বিবাহ দেয়। এরপর থেকে বিগত ১ বছর ৩ মাস বহুকষ্টে অনেক নির্যাতন সহ্য করে আমার মেয়ে সংসার করে আসছিল। আমার মেয়ের স্বামী ও তার পরিবার অর্থলোভী ছিল, বিয়ের পর থেকেই তারা যৌতুকের জন্য কখনও ৫ লক্ষ আবার কখনও ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করত।

আমি আমার মেয়ের সুখের জন্য যৌতুক দাবীর প্রেক্ষাপটে ৬ লক্ষ টাকা খরচ করে জামাইকে গাড়ির গ্যারেজ এর ব্যবসা খুলে দিই। পুনরায় কিছুদিন পরে আবারও ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করিলে দিতে বিলম্ব হওয়ায় সে গরম পানি দ্বারা আমার মেয়েকে ঝলসে দেয়।

আসলে সে একজন মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারী। ইয়াবা সহ বিভিন্ন মাদক ব্যবসার ডিলার। ইতিপূর্বে মাদক অভিযান কালে এক ডিবিকে গুরুতর আহতও করে সে।

বিষয়টি ডবলমুরিং মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবরে একটি সাধারণ ডাইরী করা হলেও উক্ত থানা এখনও পর্যন্ত কোন প্রকারের পদক্ষেপ গ্রহণ করে নাই জানা গেছে।

আসামীর বিরুদ্ধে ডবলমুরিং মডেল থানায় অফিসার ইনচার্য বরাবর মামলা দায়ের করন। যাহার মামলা নং -০১, তাং- ০১/০২/২০২০ইং ধারী নারী ও শিশু নির্যাতন দর্শন আইন ২০০০ (সংশোধনী ২০০৩) এর ১১ (খ)।

নির্যাতিত স্ত্রীর বাবা ও তার মায়ের কান্নার করুণ সুর পুরো চট্টগ্রাম জেলাকে রীতিমত অবাক করিয়ে দেয়। এরকম পাষন্ড পিতার কার্যক্রম যেন জাহেলি যুগকেও হার মানায়।

৩ মাসের নিষ্পাপ শিশু ও তার মাকে জ্বলসে দিল মাদকসেবী পাষন্ড বাবা

প্রকাশিত সময় ০৩:১৯:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০

চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রাম মহানগরীর ডবলমুরিং থানাস্থ গায়েবী মসজিদের পাশে এ ইতিহাস বিবর্তনী নির্মম ঘটনাটি ঘটে। মাদকসেবী পিতা তার তিন মাসের শিশুকে ও তার মাকে যৌতুকের দায়ে উত্তপ্ত গরম পানি দ্বারা শরীরের প্রায় অধিকাংশ অংশ ঝলসে দেয়।

গত ২৯ জানুয়ারী, আনুমানিক ১১.৩০ ঘটিকার চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ থানার পানওয়াল পাড়ার লুৎফুর নাহার পিংকি (২৮) ও তার তিন মাসের কন্যা শিশুকে তার স্বামী মিজানুর রহমান যৌতুকের জন্য এই এই ঘটনা ঘটায়।

ভুক্তভোগীর পিতা সৈয়দ মিয়ার থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালে তার মেয়েকে চট্টগ্রামের চন্দোনাইশ থানার বৈলতলী’র আনোয়ার হোসেনের ছেলে মিজানুর রহমান এর সাথে ৭ লক্ষ টাকা মহোরনা পূর্বক বিবাহ দেয়। এরপর থেকে বিগত ১ বছর ৩ মাস বহুকষ্টে অনেক নির্যাতন সহ্য করে আমার মেয়ে সংসার করে আসছিল। আমার মেয়ের স্বামী ও তার পরিবার অর্থলোভী ছিল, বিয়ের পর থেকেই তারা যৌতুকের জন্য কখনও ৫ লক্ষ আবার কখনও ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করত।

আমি আমার মেয়ের সুখের জন্য যৌতুক দাবীর প্রেক্ষাপটে ৬ লক্ষ টাকা খরচ করে জামাইকে গাড়ির গ্যারেজ এর ব্যবসা খুলে দিই। পুনরায় কিছুদিন পরে আবারও ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করিলে দিতে বিলম্ব হওয়ায় সে গরম পানি দ্বারা আমার মেয়েকে ঝলসে দেয়।

আসলে সে একজন মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারী। ইয়াবা সহ বিভিন্ন মাদক ব্যবসার ডিলার। ইতিপূর্বে মাদক অভিযান কালে এক ডিবিকে গুরুতর আহতও করে সে।

বিষয়টি ডবলমুরিং মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবরে একটি সাধারণ ডাইরী করা হলেও উক্ত থানা এখনও পর্যন্ত কোন প্রকারের পদক্ষেপ গ্রহণ করে নাই জানা গেছে।

আসামীর বিরুদ্ধে ডবলমুরিং মডেল থানায় অফিসার ইনচার্য বরাবর মামলা দায়ের করন। যাহার মামলা নং -০১, তাং- ০১/০২/২০২০ইং ধারী নারী ও শিশু নির্যাতন দর্শন আইন ২০০০ (সংশোধনী ২০০৩) এর ১১ (খ)।

নির্যাতিত স্ত্রীর বাবা ও তার মায়ের কান্নার করুণ সুর পুরো চট্টগ্রাম জেলাকে রীতিমত অবাক করিয়ে দেয়। এরকম পাষন্ড পিতার কার্যক্রম যেন জাহেলি যুগকেও হার মানায়।