৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ২-০ এগিয়ে গেল বাংলাদেশ

স্বতঃকন্ঠ বার্তাকক্ষঃ টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর মাত্র ২৪ ঘন্টা পর মিরপুরে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ

প্রথমে পাওয়ারপেলে নেওয়ার পরে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং দুর্দশা অব্যাহত ছিল। মিচেল মার্শ এবং মোইসেস হেনরিক্স সতর্ক ৫৭ রানের জুটি গড়েন।

রান রেট প্রায় ছয়-এক ওভার ছিল এবং উভয় ব্যাটার শেষ পর্যন্ত বিপরীত দিকে তাকিয়ে ছিল। সাকিব আল হাসানের কাছে হেনরিক্সের ব্যর্থ প্রচেষ্টা ভালোভাবে শেষ হয়নি, ৩০ রানে বোল্ড হন। মার্শ ৪২ বলে ৪৫ রানে বিদায় নেন।

অস্ট্রেলিয়া ১২১/৭ রানে সীমাবদ্ধ থাকায় শেষ পাঁচ ওভারে শুটিয়ে যায়। মুস্তাফিজুর রহমান শর্তগুলো তার পক্ষে ব্যবহার করেন এবং তিন উইকেট তুলে নেন এবং তার বাঁহাতি সঙ্গী শোরিফুল ইসলাম দুটি উইকেট নেন।

মিচেল স্টার্ক এবং জোশ হ্যাজেলউডের গতির কারণে বাংলাদেশ আবারও সমস্যায় পড়েছিল। সৌম্য সরকার অফ স্টাম্প হারিয়ে শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। নাইম শেখকে হ্যাজেলউড ৯ রানে আউট করেছিলেন।

শাকিব তার ১৭ বলে ২৬ রান করে স্নায়ু শিথিল করেন কিন্তু তার বিদায়, তৎক্ষণাৎ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, যিনি শূন্য রান করেন, অস্ট্রেলিয়াকে খেলায় ফিরিয়ে আনেন।

মাহিদি হাসান চারবার ভুল করে এবং ২৩ রানে স্টাম্পড না হওয়া পর্যন্ত একজোড়া হাতে না পৌঁছানোর জন্য তার ভাগ্যে সওয়ার হয়েছিলেন। স্বাগতিকরা ধীর গতিতে ৬৭ রান করে পাঁচ উইকেট হারিয়ে গভীর সমস্যায় পড়েছিল।

তরুণ আফিফ হোসেন ক্রমবর্ধমান চাপের কারণে বিচলিত হননি। অন্য প্রান্তে তার সঙ্গী নুরুল হাসান সোহান ছিলেন, ৫৬ রানের অবিচ্ছিন্ন পার্টনারশিপের ফলে আট বল বাকি থাকতে বাংলাদেশকে লাইনের উপর দিয়ে দেখতে পান।

আফিফ তার ৩১ বলে ৩৭ নট আউটে পাঁচটি বাউন্ডারি ও একটি ছয় মারেন, সোহান ২২ রান করে সমর্থন করেন।

শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথমবারের মতো দ্বিপাক্ষিক সিরিজ জয়ের সন্ধানে ফিরে আসবে বাংলাদেশ ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

অস্ট্রেলিয়া ২০ ওভারে ১২১/৭ (মার্শ ৪৫, হেনরিক্স ৩০; মুস্তাফিজুর ৩/২৩, শোরিফুল ২/২৭)

বাংলাদেশ ১৮.৪ ওভারে ১২৩/৫ (আফিফ ৩৭*, শাকিব ২৬; আগর ১/১৭, হ্যাজেলউড ১/২১)

বাংলাদেশ ৫ উইকেটে বিজয়ী।

আরও পড়ুনঃ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১ম বারের মতো টি-টোয়েন্টিতে জয় অর্জন করেছে টাইগাররা

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন