প্রেমিক-প্রেমিকার আত্মহত্যা

শনিবার দুপুরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের চক-জয়কৃঞ্চপুর গ্রামে সিরাজগঞ্জের তাড়াশে দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে প্রেমিক-প্রেমিকার আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে তাড়াশ থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, প্রেমিক-প্রেমিকার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ জানান, চক-জয়কৃঞ্চপুর গ্রামের আব্দুর রউফের মেয়ে নবম শ্রেণির ছাত্রী রুবিনা খাতুনের (১৫) সঙ্গে পাশ্ববর্তী রঘুনিলী গ্রামের ময়ান আলী ওরফে মইলামদীর ছেলে সাহেদ আলীর (১৮) প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

সম্প্রতি রুবিনা খাতুনের অভিভাবকরা তার অনত্র বিয়ে ঠিক করেন। বিয়েতে রুবিনা অমত করলে অভিভাবকরা বকাঝকা করেন।

এতে অভিমান করে সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রুবিনা নিজ বাড়ির শয়নকক্ষের দরজা আটকে কীটনাশক পান করে।

বিষয়টি টের পেয়ে তাকে উদ্ধার বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা জানান, এ দিকে রুবিনার মৃত্যুর খবর পেয়ে দুপুরে শাহেদ আলী নিজ বাড়িতে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।

ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থার নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন