সাঁথিয়ায় নাগরিক সংলাপ কর্মশালা

সাঁথিয়া(পাবনা)প্রতিনিধিঃ একাদশতম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর রাজনৈতিক সংস্কৃতি সৃষ্টির লক্ষ্যে শান্তিপূর্ণ সহ অবস্থান ও সহিংসতা পরিহার কল্পে বিভিন্ন পেশার মানুষ যেমন সক্রিয় নাগরিক সমাজ, রাজনৈতিক দল, সুশীল সমাজ, সাংবাদিক, সরকারি কর্মকর্তা, যুব ও মহিলা প্রতিনিধিদের অংশগ্রহনে উপরোক্ত বিষয়ে উদ্দীপনা সৃষ্টির লক্ষ্যে পাবনা জেলার সাঁথিয়া উপজেলায় নাগরিক সংলাপ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

দাতা সংস্থা ডি,আই’র অর্থায়নে এবং সাব পার্টনার রূপান্তর এর সহযোগিতায় ও রূপান্তর পার্টনার পাবনা প্রতিশ্রুতির আয়োজনে বুধবার সাঁথিয়া উপজেলা পরিষদ হল রুমে সাঁথিয়া উপজেলা আ’লীগের সাবেক সভাপতি এবং জেলা আ’লীগের সদস্য মোজাম্মেল হক খানের সভাপতিত্বে এ নাগরিক সংলাপ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাঁথিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মাওঃ মোখলেছুর রহমান।

প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন,সাঁথিয়া পৌর মেয়র মিরাজুল ইসলাম প্রামানিক, সাঁথিয়া উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ দেলোয়ার, জোড়গাছা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, পাবনা প্রতিশ্রুতির প্রকল্প কর্মকর্তা আব্দুল আলিম (রিপন), ডি,আই’র প্রতিনিধি মাসুদ করিম।

আরও উপস্থিত ছিলেন রুপান্তরের মনিটরিং কর্মকর্তা রবিউল হক, উপজেলা পঃপঃ কর্মকর্তা গোলাম মহিউদ্দিন, সাঁথিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম,সাবেক সম্পাদক মানিক মিয়া রানা, সহকারি অধ্যাপক মিজানুর রহমান, উপজেলা দুদক সভাপতি গোলাম মওলা, প্রভাষক হাসিনা নুশরাত কেয়া, আক্তারুজ্জামান খোকন,আব্দুল মতিন, মধু সুদন ও শাকিলা খাতুন প্রমুখ।

বিভিন্ন শ্রেনী পেশার ৩৫জন অংশ গ্রহণ করেন। এদের প্রত্যেকে ২’শ টাকা সম্মানী দেয়া হয়।

উক্ত নাগরিক সংলাপ কর্মশালায় স্বাস্থ্য সেবা যেমন, ওষুধ, ডাক্তার, নার্স ও এ্যাম্বুলেন্স সমস্যা, স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পরিবেশ।

দূর্নীতি দমন, ধর্মীয় শিক্ষা ও কিন্ডার গার্টেন শিক্ষা ব্যাবস্থাপনা, সেনিটারী ব্যাবস্থপনাা, বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকট, কৃষি ও কৃষক সমস্যা, মাদক, হাট-বাজারের পরিবেশ ব্যাবস্থাপনা, সেচ ব্যাবস্থাপনা, কৃষি বাজার ব্যাবস্থাপনা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য।

জল মহল ও খাস জমি, ইউনিয়ন পরিষদে বিদ্যমান বিভিন্ন সেবা কার্যক্রমে দূর্নীতি, মৎস বিভাগ, প্রাণী সম্পদ বিভাগ, সমবায়, মহিলা বিষায়ক বিভাগ।

এ ছাড়াও ইউনিয়ন,উপজেলা জেলা পর্যায়ে বিদ্যমান বিভিন্ন প্রকার সরকারি সেবা সমূহ চিহ্নিত করণ (নাগরিক সনদ অনুযায়ী) ও সেবা প্রপ্তিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করা যাতে জাতীয় পর্যায়ের বিদ্যমান সেবা সমূহ স্থানীয় চাহিদার ভিত্তিতে সুবিন্যাস্তভাবে ব›টিন হতে পারে সে বিষয়ে করণীয় বিষয়াবলীর উপর অংশগ্রহনকারীগণ বিশেষভাবে আলোকপাত করেন।

একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন