ঈশ্বরদীতে কাঁচা মরিচ ৪০ টাকা কেজি

কাঁচা মরিচ

ঈশ্বরদী সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ৫:৩৭ অপরাহ্ন, আগষ্ট ২৮, ২০২২


ঈশ্বরদীতে প্রতি কেজি কাঁচা মরিচ ৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। মাত্র ছয় দিনের ব্যবধানে খুচরা বাজারে প্রতি কেজি কাঁচা মরিচে দাম কমেছে ৬০ টাকা। রোববার (২১ আগস্ট) প্রতি কেজি কাঁচা মরিচ ১০০ টাকা দরে বিক্রি হয়। শুক্রবার (২৬ আগস্ট) তা কমে ৪০ টাকা হয়েছে। পাইকারি বিক্রেতারা বিক্রি করছেন ৩৫ টাকা কেজি দরে।

ঈশ্বরদী বাজারের কাঁচামাল আড়ত ও উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের বড়ইচারা হাট ঘুরে শুক্রবার বিকালে এতথ্য জানা গেছে।

বড়ইচারা হাটের কাঁচামাল ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান মিজান জানান, গত ছয় দিন ধরে পর্যায়ক্রমে কাঁচা মরিচের দাম কমছে। গত শুক্রবার (১৯ আগস্ট) হাটে প্রতি কেজি কাঁচা মরিচ ১৪০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। সোমবারের হাটে ১০০ টাকা কেজি বিক্রি হয়। (শুক্রবারের) হাটে ৪০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, কাঁচা মরিচ পাইকারি ৩২ টাকা কেজি দরে কিনেছি। বিক্রি করছি ৪০ টাকা দরে।

বড়ইচারা হাটের পাইকারি কাঁচা মরিচ ব্যবসায়ী আজিজুল হক বলেন, এ অঞ্চলের মধ্যে এখন সবচেয়ে বেশি কাঁচা মরিচ পাওয়া যায় কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার কাঁচামাল আড়তে। ভেড়ামারার গোলাপনগর এলাকাজুড়ে ব্যাপক মরিচের চাষাবাদ হয়েছে। ভেড়ামারা আড়ত থেকে রবিবার সকালে পাইকারি কাঁচা মরিচ কিনেছি ২৮ থেকে ৩২ টাকা কেজি দরে। এসব মরিচ ঈশ্বরদীর আড়ত ও বিভিন্ন হাটবাজারে ৩৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেছি।

ঈশ্বরদী বাজারের কাঁচামাল ব্যবসায়ী আমিন উদ্দিন জানান, রবিবার আড়তে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে কাঁচা মরিচ বিক্রি হয়েছে। আড়তে মরিচের আমদানি বেশ ভালো। দু-একদিনের মধ্যে দাম আরও কমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বড়ইচারা হাটে কাঁচা মরিচের ক্রেতা হাবিবুর রহমান বলেন, ‘গত সোমবারের হাটে ১০০ টাকা কেজি দরে কাঁচা মরিচ কিনেছি। ভেবেছিলাম এ হাটে দাম কিছু কমতে পারে। কিন্তু ৪০ টাকা কেজি দরে কাঁচা মরিচ পাবো আশা করিনি।’ঈশ্বরদী বাজারের তরকারি ব্যবসায়ী মনজু জানান, “সব জিনিসের দাম কমলে ভাল হতো।”

 


 আরও পড়ুনঃ

 আরও পড়ুনঃ


একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন

[gs-fb-comments]