সাবেক মহিলা মেম্বর রোজী সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে আহত

আতাইকুলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য রুবিয়া আক্তার রোজী সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়ে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

পাবনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১১:৫১ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২২। আপডেট: ১১:৫৯ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ১৩


বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ পাবনা জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও আতাইকুলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য রুবিয়া আক্তার রোজী সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়ে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আহত রুবিয়া আক্তার রোজী সদর উপজেলা ও আতাইকুলা থানার মৌগ্রাম গ্রামের জিয়া খানের স্ত্রী।

সোমবার রাত ৮টার দিকে পাবনা সদর উপজেলার জোয়ারদহ ফুটবল মাঠের সামনে তাকে ছুরিকাঘাতে আহত করা হয়।

আহতের স্বামী জিয়া খান জানান, সোমবার দুপুরে রোজী তাদের একদন্ত হাট ইজারার কালেকশন করতে যান। হাট কালেকশন শেষে রাত সাড়ে ৭টার দিকে সে তার দুই ভাগ্নের সাথে মোটর সাইকেলযোগে পাবনা শহরের বাসায় ফিরছিল। তারা একদন্ত-জালালপুর সড়কের জোয়ারদহ ফুটবল মাঠের কাছে এলে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা ৭/৮ জন সন্ত্রাসী তাদের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে এবং এলাপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে এবং রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। রোজীর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে প্রচন্ড রক্তাক্ত অবস্থায় সন্ত্রাসীরা রোজীকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জিয়া আরো অভিযোগ করে বলেন, রোজীর কাছে তার ভ্যানিটি ব্যাগে হাট কালেকশনের ৫ লাখ ৩৩ হাজার টাকা সন্ত্রাসীরা ছিনিয়ে নিয়ে গেছে। স্থানীয় একটি গ্রুপের সাথে দীর্ঘদিন ধরে তাদের বিরোধ চলছিল। তারাই পরিকল্পিতভাবে এসব করেছে।

এব্যাপারে আতাইকুলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, বিষয়টি শোনার পরপরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আহত রোজীর পরিবারের পক্ষ থেকে আতাইকুলা থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। রোজীর উপর বর্ববরচিত সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় পাবনা জেলা যুব মহিলা লীগ তীব্র নিন্দা ও ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

 


 আরও পড়ুনঃ

 আরও পড়ুনঃ


একই ধরনের খবর

মন্তব্য করুন

[gs-fb-comments]