ঢাকা ০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com // দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ অনলাইন ও প্রিন্ট পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৭১১-৩৩৩৮১১, ০১৭৪৪-১২৪৮১৪

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিবন্ধির গৃহ নির্মাণ করে দিল মানাব ও শুভসংঘ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত সময় ০২:১৪:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪
  • / 38



পাবনার ঈশ্বরদীতে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিবন্ধি আব্দুস সালাম খানের (৪৩) গৃহ নির্মাণ করে দিল ‘মাদককে না বলুন (মানাব)’ ও ‘বসুন্ধরা শুভসংঘ’ ঈশ্বরদী কমিটি।

প্রায় দেড় লাখ টাকা ব্যয়ে একটি মেঝে পাকা টিনের চারচাল ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান দুটি।

গত ২৯ এপ্রিল সকালে সালামের শিশু ছেলে গ্যাস লাইট নিয়ে খেলার সময় আগুন লেগে বসবাসের একমাত্র ঘরটি পুড়ে ভস্মিভুত হয়ে যায়।

সালামের উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের মসজিদ মোড় এলাকার মৃত ওহিদুল খানের ছেলে। সে শ্রবন ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধি।

অন্যের জমিতে কাজ করে এবং বাড়িতে মুরগী ও ছাগল পালন করে জীবিকা নির্বাহ করত। আকস্মিক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তার ও পরিবারের মাথা গুজার ঘরটি ভস্মীভূত হয়ে যায়। এরপর থেকে পরিবারটি খোলা আকাশের নিচে পলিথিন টাঙিয়ে বৃষ্টি ও ঝড়ে মুরগী ও ছাগলের সঙ্গে বসবাস করছিল।

স্থানীয়দের মধ্যে আওয়ামীলীগ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলী বিশ্বাস জানান, মানাব ও শুভ সংঘ সত্যিই মানবিক ও চরম প্রশংসনীয় কাজ করছে। প্রতিষ্ঠান দুটির সভাপতি মাসুম পারভেজ কল্লোল একজন মানবিক মানুষ। সমাজ সংস্কারক। ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক ও সমাজসেবক। কল্লোল উদ্যোগ গ্রহন না করলে অসহায় শ্রবন ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধি সালামের নতুন বাড়ি নির্মাণ করা সম্ভব হতো না।

মাদককে না বলুন (মানাব) ও বসুন্ধরা শুভসংঘ ঈশ্বরদী কমিটির সভাপতি মাসুম পারভেজ কল্লোল জানান, ক্ষতিগ্রস্থ সালামের প্রতিবেশি স্কুল শিক্ষার্থী রিফাত হোসেন তার বন্ধুদের সঙ্গে করে ২২শ টাকা চাঁদা তুলে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারটি হাতে দিয়েছে। বিষয়টি রিফাতের নিকট থেকে শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পরিবারটিকে মানবিক জীবন যাপন করতে দেখে বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এরপর মানাব ও বসুন্ধরা শুভসংঘের ঈশ্বরদী শাখার সদস্যসহ দানশীল বিভিন্ন ব্যক্তির সহযোগিতায় সালামের বাড়িটি নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে। বাড়ির কাজ কয়েকদিনের মধ্যেই শেষ হবে।

কল্লোল আর জানান, মানাব ও বসুন্ধরা শুভসংঘের ঈশ্বরদী শাখার মত দেশের অন্যান্য এলাকার মানুষগুলো অর্থনৈতিকভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে সালামের মত হাজারো অসহায় সালাম সুন্দরভাবে বাঁচতে পারবে। আমাদের প্রত্যাশা সমাজের দানশীল ব্যক্তি ও সামাজিক সংগঠনগুলো আমাদের এই কাজ দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে কাজ করবেন।

প্রতিবন্ধি আব্দুস সালাম খান তার স্ত্রী ও ছেলেমেয়েরা আবেগে আপ্লুত হয়ে জানান, আমরা কোন দিনও ভাবেনি। আমরা আবার টিনের ঘরে থাকতে পারবো। কল্লোল স্যার এলাকার কিছু ছেলেদের মাধ্যমে আমাদের জন্য মেঝেপাকা টিনের বেড়া দেওয়া আধাপাকা বাড়ি বানিয়ে দিচ্ছেন। আল্লাহ কল্লোল স্যারসহ সকলের ভালো করুক।

এই রকম আরও টপিক

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিবন্ধির গৃহ নির্মাণ করে দিল মানাব ও শুভসংঘ

প্রকাশিত সময় ০২:১৪:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪



পাবনার ঈশ্বরদীতে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিবন্ধি আব্দুস সালাম খানের (৪৩) গৃহ নির্মাণ করে দিল ‘মাদককে না বলুন (মানাব)’ ও ‘বসুন্ধরা শুভসংঘ’ ঈশ্বরদী কমিটি।

প্রায় দেড় লাখ টাকা ব্যয়ে একটি মেঝে পাকা টিনের চারচাল ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান দুটি।

গত ২৯ এপ্রিল সকালে সালামের শিশু ছেলে গ্যাস লাইট নিয়ে খেলার সময় আগুন লেগে বসবাসের একমাত্র ঘরটি পুড়ে ভস্মিভুত হয়ে যায়।

সালামের উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের মসজিদ মোড় এলাকার মৃত ওহিদুল খানের ছেলে। সে শ্রবন ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধি।

অন্যের জমিতে কাজ করে এবং বাড়িতে মুরগী ও ছাগল পালন করে জীবিকা নির্বাহ করত। আকস্মিক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তার ও পরিবারের মাথা গুজার ঘরটি ভস্মীভূত হয়ে যায়। এরপর থেকে পরিবারটি খোলা আকাশের নিচে পলিথিন টাঙিয়ে বৃষ্টি ও ঝড়ে মুরগী ও ছাগলের সঙ্গে বসবাস করছিল।

স্থানীয়দের মধ্যে আওয়ামীলীগ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলী বিশ্বাস জানান, মানাব ও শুভ সংঘ সত্যিই মানবিক ও চরম প্রশংসনীয় কাজ করছে। প্রতিষ্ঠান দুটির সভাপতি মাসুম পারভেজ কল্লোল একজন মানবিক মানুষ। সমাজ সংস্কারক। ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক ও সমাজসেবক। কল্লোল উদ্যোগ গ্রহন না করলে অসহায় শ্রবন ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধি সালামের নতুন বাড়ি নির্মাণ করা সম্ভব হতো না।

মাদককে না বলুন (মানাব) ও বসুন্ধরা শুভসংঘ ঈশ্বরদী কমিটির সভাপতি মাসুম পারভেজ কল্লোল জানান, ক্ষতিগ্রস্থ সালামের প্রতিবেশি স্কুল শিক্ষার্থী রিফাত হোসেন তার বন্ধুদের সঙ্গে করে ২২শ টাকা চাঁদা তুলে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারটি হাতে দিয়েছে। বিষয়টি রিফাতের নিকট থেকে শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পরিবারটিকে মানবিক জীবন যাপন করতে দেখে বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এরপর মানাব ও বসুন্ধরা শুভসংঘের ঈশ্বরদী শাখার সদস্যসহ দানশীল বিভিন্ন ব্যক্তির সহযোগিতায় সালামের বাড়িটি নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে। বাড়ির কাজ কয়েকদিনের মধ্যেই শেষ হবে।

কল্লোল আর জানান, মানাব ও বসুন্ধরা শুভসংঘের ঈশ্বরদী শাখার মত দেশের অন্যান্য এলাকার মানুষগুলো অর্থনৈতিকভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে সালামের মত হাজারো অসহায় সালাম সুন্দরভাবে বাঁচতে পারবে। আমাদের প্রত্যাশা সমাজের দানশীল ব্যক্তি ও সামাজিক সংগঠনগুলো আমাদের এই কাজ দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে কাজ করবেন।

প্রতিবন্ধি আব্দুস সালাম খান তার স্ত্রী ও ছেলেমেয়েরা আবেগে আপ্লুত হয়ে জানান, আমরা কোন দিনও ভাবেনি। আমরা আবার টিনের ঘরে থাকতে পারবো। কল্লোল স্যার এলাকার কিছু ছেলেদের মাধ্যমে আমাদের জন্য মেঝেপাকা টিনের বেড়া দেওয়া আধাপাকা বাড়ি বানিয়ে দিচ্ছেন। আল্লাহ কল্লোল স্যারসহ সকলের ভালো করুক।