ঢাকা ০৮:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com // দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ অনলাইন ও প্রিন্ট পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৭১১-৩৩৩৮১১, ০১৭৪৪-১২৪৮১৪

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ঈশ্বরদী ইপিজেডস্থ আইএমবিডি’র এক কর্মকর্তাকে থানায় সোপর্দ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত সময় ০৯:১৪:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪
  • / 66

ঈশ্বরদী ইপিজেডের জাপানি মালিকানাধীন ঈশ্বরদী মাতসুকা বাংলাদেশ লিমিটেড (আইএমবিডি) গার্মেন্টস কোম্পানির হিসাব শাখার সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলম।



কোম্পানির অর্থ আত্মসাত, নিয়োগ বাণিজ্যসহ নানা অপরাধে পাবনার ঈশ্বরদী ইপিজেডের জাপানি মালিকানাধীন ঈশ্বরদী মাতসুকা বাংলাদেশ লিমিটেড (আইএমবিডি) গার্মেন্টস কোম্পানির হিসাব শাখার সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলমকে বরখাস্তসহ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

বুধবার ৩ জুলাই সারাদিন ধরে মেহেদীর বিরুদ্ধে পাওয়া অভিযোগগুলো তদন্ত করে প্রমাণ পেয়ে বিকেলে কোম্পানিটির জাপানি ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ঊশিদা স্বাক্ষরিত পত্রে তাকে বরখাস্ত করা হয়। এরপর সন্ধ্যায় কোম্পানিটির জ্যেষ্ট প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ সোহাগ বাদী হয়ে থানায় এজাহার দায়েরসহ অভিযুক্ত মেহেদীকে থানায় সোপর্দ করা হয়।

আইএমবিডি সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলম কুষ্টিয়া কুমারখালীর সেরকান্দি আজিজুল হক সড়কের কে এম সিরাজুল আলমের ছেলে।

ঈশ্বরদী মাতসুকা বাংলাদেশ লিমিটেড (আইএমবিডি) কোম্পানির মহা-ব্যবস্থাপক (জিএম, প্রশাসন ও অনুবর্তিতা) সাবিহা নাসরিন মলি জানান, কে এম মেহেদী আলম বিগত আড়াই বছর আগে কোম্পানিতে হিসাব শাখায় ব্যবস্থাপক হিসেবে যোগদান করেন। চলতি বছরের জানুয়ারিতে সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে কোম্পানির জাপানি ব্যবস্থাপনা পরিচালকের স্বাক্ষর জাল করে অর্থ আত্মসাত করে আসছিলেন। চলতি বছরের মে মাসে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের স্বাক্ষর জাল করে ৮ টি বেতন হিসেবে করে মেহেদী আলম তার ব্যক্তিগত হিসেবে নম্বরে ৭ লাখ ৪৬ হাজার ৭৮৪ টাকা হস্তান্তর করেছেন। এছাড়া তিনি কোম্পানির সাব ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মালিকদের নিকট থেকে কমিশন বাণিজ্য করেছেন। স্থানীয়দের কোম্পানিতে চাকরি দেওয়ার নাম করে অর্থ গ্রহণ করে কোম্পানির সুনাম নষ্ট করেছেন। বিষয়গুলো কোম্পানির নজরে আসলে অনুসন্ধান করে ও ব্যাংক স্টেটমেন্ট দেখে অর্থ আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়া যায়। এরপর তাকে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

ঈশ্বরদী ইপিজেডের (বেপজা) নির্বাহী পরিচালক প্রকৌশলী মোঃ আনিসুর রহমান জানান, দোষী প্রমানিত হলে (আইএমবিডি) গার্মেন্টস কোম্পানির হিসাব শাখার সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলমকে ব্লাকলিস্ট করা হবে। যেন তিনি কোন ইপিজেডে আর চাকরি করতে না পারেন। তার বিরুদ্ধে চাকরি বাণিজ্যের অভিযোগগুলো তদন্ত করা হচ্ছে। কোম্পানির অর্থ আত্মসাত করার প্রমান পাওয়ায় মামলা দায়েরসহ তাকে থানায় সোপর্দ করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এবিষয়ে জানতে ঈশ্বরদী মাতসুকা বাংলাদেশ লিমিটেড (আইএমবিডি) গার্মেন্টস কোম্পানির হিসাব শাখার সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলমের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু এই বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, কোম্পানির পক্ষ থেকে হিসাব শাখার সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলমের বিরুদ্ধে এজাহার দায়েরসহ তাকে সোপর্দ করা হয়েছে। এজাহার অনুসারে তার বিরুদ্ধে পরবর্তি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এই রকম আরও টপিক

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ঈশ্বরদী ইপিজেডস্থ আইএমবিডি’র এক কর্মকর্তাকে থানায় সোপর্দ

প্রকাশিত সময় ০৯:১৪:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪



কোম্পানির অর্থ আত্মসাত, নিয়োগ বাণিজ্যসহ নানা অপরাধে পাবনার ঈশ্বরদী ইপিজেডের জাপানি মালিকানাধীন ঈশ্বরদী মাতসুকা বাংলাদেশ লিমিটেড (আইএমবিডি) গার্মেন্টস কোম্পানির হিসাব শাখার সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলমকে বরখাস্তসহ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

বুধবার ৩ জুলাই সারাদিন ধরে মেহেদীর বিরুদ্ধে পাওয়া অভিযোগগুলো তদন্ত করে প্রমাণ পেয়ে বিকেলে কোম্পানিটির জাপানি ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ঊশিদা স্বাক্ষরিত পত্রে তাকে বরখাস্ত করা হয়। এরপর সন্ধ্যায় কোম্পানিটির জ্যেষ্ট প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ সোহাগ বাদী হয়ে থানায় এজাহার দায়েরসহ অভিযুক্ত মেহেদীকে থানায় সোপর্দ করা হয়।

আইএমবিডি সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলম কুষ্টিয়া কুমারখালীর সেরকান্দি আজিজুল হক সড়কের কে এম সিরাজুল আলমের ছেলে।

ঈশ্বরদী মাতসুকা বাংলাদেশ লিমিটেড (আইএমবিডি) কোম্পানির মহা-ব্যবস্থাপক (জিএম, প্রশাসন ও অনুবর্তিতা) সাবিহা নাসরিন মলি জানান, কে এম মেহেদী আলম বিগত আড়াই বছর আগে কোম্পানিতে হিসাব শাখায় ব্যবস্থাপক হিসেবে যোগদান করেন। চলতি বছরের জানুয়ারিতে সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে কোম্পানির জাপানি ব্যবস্থাপনা পরিচালকের স্বাক্ষর জাল করে অর্থ আত্মসাত করে আসছিলেন। চলতি বছরের মে মাসে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের স্বাক্ষর জাল করে ৮ টি বেতন হিসেবে করে মেহেদী আলম তার ব্যক্তিগত হিসেবে নম্বরে ৭ লাখ ৪৬ হাজার ৭৮৪ টাকা হস্তান্তর করেছেন। এছাড়া তিনি কোম্পানির সাব ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মালিকদের নিকট থেকে কমিশন বাণিজ্য করেছেন। স্থানীয়দের কোম্পানিতে চাকরি দেওয়ার নাম করে অর্থ গ্রহণ করে কোম্পানির সুনাম নষ্ট করেছেন। বিষয়গুলো কোম্পানির নজরে আসলে অনুসন্ধান করে ও ব্যাংক স্টেটমেন্ট দেখে অর্থ আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়া যায়। এরপর তাকে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

ঈশ্বরদী ইপিজেডের (বেপজা) নির্বাহী পরিচালক প্রকৌশলী মোঃ আনিসুর রহমান জানান, দোষী প্রমানিত হলে (আইএমবিডি) গার্মেন্টস কোম্পানির হিসাব শাখার সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলমকে ব্লাকলিস্ট করা হবে। যেন তিনি কোন ইপিজেডে আর চাকরি করতে না পারেন। তার বিরুদ্ধে চাকরি বাণিজ্যের অভিযোগগুলো তদন্ত করা হচ্ছে। কোম্পানির অর্থ আত্মসাত করার প্রমান পাওয়ায় মামলা দায়েরসহ তাকে থানায় সোপর্দ করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এবিষয়ে জানতে ঈশ্বরদী মাতসুকা বাংলাদেশ লিমিটেড (আইএমবিডি) গার্মেন্টস কোম্পানির হিসাব শাখার সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলমের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু এই বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, কোম্পানির পক্ষ থেকে হিসাব শাখার সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক (এজিএম) কে এম মেহেদী আলমের বিরুদ্ধে এজাহার দায়েরসহ তাকে সোপর্দ করা হয়েছে। এজাহার অনুসারে তার বিরুদ্ধে পরবর্তি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।